• বিদেশ ডেস্ক
  • ১৪ জানুয়ারি ২০২০ ২০:০৪:০১
  • ১৪ জানুয়ারি ২০২০ ২০:০৪:০১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

নাগরিকত্ব আইন বাতিলে প্রয়োজন ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন: অমর্ত্য সেন

অমর্ত্য সেন। ছবি : সংগৃহীত

ভারতের নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন বলেছেন, ‘একতাই বল। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গেলে একজোট হয়েই করতে হবে, বিচ্ছিন্নভাবে নয়।’

কংগ্রেসের আহ্বানে সোমবার নাগরিকত্ব আইন, এনপিআর সংক্রান্ত বৈঠক এড়িয়ে গেছে বেশ কিছু আঞ্চলিক দল।

এ বিষয়েই অমর্ত্য সেন বলেন, ‘যদি ঐক্য না হয়, কোনো প্রতিবাদ-আন্দোলনই কাজে আসবে না।’

দেশজোড়া বিক্ষোভের মধ্যেই সিএএ-এনপিআর-এনআরসি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে নিজেদের অবস্থান ঠিক করতে বৈঠকে বসেছিলেন বিরোধীরা। কিন্তু তাতে যোগ দেননি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বিএসপি নেত্রী মায়াবতীসহ আরও কয়েকটি বিরোধী দলের প্রধান।

কলকাতার এক অনুষ্ঠানে এসে তিনি বলেন, ‘প্রতিবাদ যদি সঠিক কারণে হয়, তবে ঐক্যবদ্ধ থাকা গুরুত্বপূর্ণ। তবে যদি একতা না থাকে, তার অর্থ এই নয় যে, আমরা প্রতিবাদ বন্ধ করে দেব।’

কংগ্রেস নেতা শশী থারুরও অমর্ত্য সেনের মন্তব্যকে সমর্থন করেন।

এর আগে অমর্ত্য সেন বলেন, ‘সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনটি সংবিধানের নীতি লঙ্ঘন করছে।’

বিরোধী ঐক্যের ক্ষেত্রে বড় ধাক্কা তৃণমূল কংগ্রেস, বহুজন সমাজ পার্টি, শিবসেনা, ডিএমকে এবং সমাজবাদী পার্টিসহ ছয়টি প্রধান আঞ্চলিক দলের সোমবার ওই বৈঠকে যোগ না দেয়া।

পাশাপাশি অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি বলেছে, ওই বৈঠকে যোগ দেয়ার জন্য তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।

বিরোধী বৈঠকে যে ২০ দল অংশ নিয়েছে, তারা সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তাদের রাজ্যে জাতীয় নাগরিকপঞ্জিকরণ বাস্তবায়ন করতে দিতে অস্বীকার করবেন।

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0207 seconds.