• বাংলা ডেস্ক
  • ১৩ নভেম্বর ২০১৯ ১৮:১১:৪৩
  • ১৩ নভেম্বর ২০১৯ ১৮:১১:৪৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

৩০ বছর পর দেখা দিলো ‘ইঁদুর-হরিণ’

মাউস ডিয়ার। ছবি : সংগৃহীত

একটি বিরল প্রজাতির ছোট হরিণের মতো প্রাণীর দেখা মিললো ভিয়েতনামের উত্তর-পশ্চিম দিকের বনাঞ্চলে। এটি দেখতে অনেকটা হরিণের মতো হলেও ঠিক হরিণ নয়। আবার খরগোশের আকারের প্রাণীটি দেখতে কিছুটা ইঁদুরের মতোও। ছোট্ট ও অদ্ভুত প্রাণীটিকে তাই ডাকা হয় ‘ইঁদুর-হরিণ’।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রায় ৩০ বছর পর দেখা দিল এই প্রাণীটি। শেষ বার এটি ১৯৯০ সালে দেখা গিয়েছিল বলে জানা গেছে।

‘নেচার ইকোলজি অ্যান্ড ইভলিউশন’-এ সোমবার এই প্রাণীটিকে নিয়ে একটি প্রবন্ধ প্রকাশ পেয়েছে। সেখানে প্রাণী বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটি একটি রুপোলি পিঠের শেভ্রোটাইন বা মাউস ডিয়ার (ইঁদুর-হরিণ)।

হরিণটি কিছুটা ইঁদুরের মতো দেখতে বলে এমন নাম। মাউস ডিয়ার প্রথম দেখা মেলে ভিয়েতনামেই। ১৯১০ সালে প্রথমবার হো চি মিন সিটি থেকে ৪৫০ কিলোমিটার দূরে নেহ ট্র্যাংয়ের কাছে দেখা মেলে। কিন্তু ১৯৯০ সালের পর এর আর দেখা মেলেনি। চোরা শিকারীদের কারণেই প্রাণীটি বিলুপ্তির পথে চলে যায় বলে মনে করা হয়।

তবে ভিয়েতনামের দুই প্রাণী বিজ্ঞনী এই মাউস ডিয়ারের সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তারা জঙ্গলের কিছু অধিবাসীদের কাছে জানতেও পারেন এই হরিণের অস্তিত্ব। তারা নাকি এদের দেখেছেন বলে জানান, তবে তার কোনো প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছিল না। প্রাণীটির অস্তিত্ব প্রমাণ করতে ওই এলাকায় ৩০টি মোশান-অ্যাক্টিভ ক্যামেরা বাসানো হয়। তারতেই ধরা পড়ছে এই মাউস ডিয়ারের ছবি।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ইঁদুর-হরিণ মাউস ডিয়ার

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0220 seconds.