• ক্রীড়া প্রতিবেদক
  • ০৮ নভেম্বর ২০১৯ ১৯:০৭:০২
  • ০৮ নভেম্বর ২০১৯ ১৯:০৭:০২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

‘হিটম্যান নাকি রান মেশিন’, হিটম্যানে ভোট শেবাগের!

ছবি : সংগৃহীত

একে তো অধিনায়ক হিসেবে সিরিজ খোয়ানোর ভয়, দ্বিতীয়ত অনেকটা আনকোড়া ব্যাটিং লাইন-আপের ওপেনার হিসেবে অনুজদের জন্য প্লাটফর্ম প্রস্তুত করে দেয়া। দিনশেষে দুই কাজেই সফল হয়েছেন ভারতীয় সেনাপ্রধান রোহিত শর্মা।

নিজের শততম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে টস ভাগ্যে জয়ী হোন রোহিত। সেই সুবাদে বাংলাদেশকে প্রথমে ব্যাটিং করার আমন্ত্রণ জানান তিনি। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় রোহিতের দলকে মাত্র ১৫৩ রানের মাঝারি মানের টার্গেট ছুড়ে দেয় বাংলাদেশ।

লক্ষ্য তারা করতে নেমে খোলস ভেদ করতে বেশি সময় নেননি রোহিত। মুস্তাফিজ, আল-আমিন, সৈকতদের নিয়ে এক প্রকার ছেলে খেলা করে মাত্র ২৩ বলে তুলে নেন ফিফটি। মোসাদ্দেকের তিন বলে তিন ছয় মেড়ে আভাস দিয়েছিলেন শতকের। তবে লেগ-স্পিনার আমিনুল ইসলামের বলে কাটা পড়েন তিনি। সাজঘরে ফেরার সময় তার নামের পাশে উজ্জ্বল করছিলো ৪৫ বলে ৮৬ রানের এক টর্নেডো ইনিংস। 

এদিকে রোহিতে মুগ্ধ ভারতীয় সাবেক ওপেনার ভিরেন্দর শেবাগ। ভারতের তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক এবং বর্তমান ক্রিকেট জগতের ব্যাটিং স্তম্ভ ভিরাট কোহলির সাথে রোহিতের তুলনা করে তিনি বলেন, ‘রোহিতের মধ্যে ঢিলেঢালা একটা ব্যাপার রয়েছে। সে বাইরে আগ্রাসন প্রকাশ করেন না। কিন্তু ব্যাট হাতে নিলেই তার আগ্রাসী খেলা নজরে পড়ে। যদিও শরীরী ভাষায় দেখা যায় না সেই আগ্রাসন।’

রোহিতের কথা বলতে গিয়ে শেবাগ ফিরে যান নিজের খেলার সময়ে। সেই সময়ে রান করা প্রসঙ্গে শচীন টেন্ডুলকার নিজের উদাহরণ টেনে বাকিদের বলেন, ‘আমি যদি করতে পারি, তা হলে তোমরা পারবে না কেন।’

সেই প্রসঙ্গ উত্থাপন করে বীরু বলেন, ‘সচিন এটা বুঝত না যে, ঈশ্বর একজনই হয়। ঈশ্বর যেটা করতে পারেন, সেটা বাকিদের পক্ষে করা সম্ভব নয়।’

একই সুরে শেবাগ আরো বলেন, ‘রোহিত নিজেকে শচিনের জায়গায় নিয়ে গিয়েছে। রোহিত যা করছে, তা এখনকার সময়ের অনেকেই করতে পারবে না।’

চলতি সিরিজে রঙিন পোশাকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে নিয়মিত অধিনায়ক ভিরাটকে। ইতোমধ্যে সহযোগী কোহলিকে টপকিয়ে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছেন এই ভারতীয় ওপেনার। রোহিত কি তাহলে ধীরেধীরে ভিরাটকেও ছাপিয়ে যাবেন? - উত্তর জানতে চোখ রাখতে হবে ভাবীকালের দিকে!

বাংলা/বিডি/এনএস

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0212 seconds.