• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৭ নভেম্বর ২০১৯ ১৩:১৪:৫১
  • ০৭ নভেম্বর ২০১৯ ১৩:১৪:৫১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

ইয়েমেনে অস্ত্র সরবরাহ করছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি : পার্স টুডে থেকে নেয়া

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলনের গেরিলা যোদ্ধাদের পরাজিত করতে বিরোধী শক্তির কাছে গোপনে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ উঠেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে। ৬ নভেম্বর, বুধবার মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন’এ সম্প্রচারিত একটি ফুটেজে এই চিত্র দেখা যায়। এমন খবর প্রকাশ করেছে পার্সটুডে।

ওই ফুটেজে দেখা যায়, খুব ভোরে অন্ধকারের মধ্যে মার্কিন নির্মিত আরমর্ড ভেহিকেলে করে এসব অস্ত্র ইয়েমেনের বন্দরনগরী এডেনে নেয়া হচ্ছে।

এসব অস্ত্র সরবরাহ করার অর্থ হচ্ছে সৌদি আরবকে সমর্থন দেয়া এবং যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনের বিরুদ্ধে সৌদি আগ্রাসনকে জোরদার করার প্রচেষ্টা চালানো। ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের ব্যাপারে আমেরিকা বরাবরের মতো দ্বৈতনীতি গ্রহণ করেছে।

মার্কিন সরকার একদিকে বলছে, ইয়েমেনে আগ্রাসন বন্ধের ব্যাপারে তারা কার্যকর ভূমিকা নিচ্ছে আবার সৌদি আরব এবং তার সমর্থকদের কাছে আমেরিকা অস্ত্র পাঠাচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে এর মধ্যেই মার্কিন রাজনীতিতে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে।

মার্কিন কংগ্রেসের অনেক সদস্য জানান, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন সৌদি-প্রীতির কারণে এসব অস্ত্র সরবরাহ অব্যাহত রেখেছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর সর্বপ্রথম বিদেশ সফরে তিনি সৌদি আরব গিয়েছিলেন এবং সেখানে ১১ হাজার কোটি ডলারের বিশাল অস্ত্র চুক্তি সই করেছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ২৬ মার্চ থেকে সৌদি আরব ইয়েমেনের ওপর বর্বর আগ্রাসন শুরু করে। যা এখন পর্যন্ত তা অব্যাহত রয়েছে। সৌদি আগ্রাসনে এ পর্যন্ত হাজার হাজার ইয়েমেনি নাগরিক হতাহত হয়েছেন। এছাড়া লাখ লাখ মানুষ উদ্বাস্তু হয়েছেন। দেশটি কার্যত ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে।

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0188 seconds.