• ০৫ নভেম্বর ২০১৯ ১৫:১০:৫০
  • ০৫ নভেম্বর ২০১৯ ১৫:১০:৫০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

রান্নাঘরে ঢুকে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা

হত্যাকারী ও নিহত শানু। ছবি : সংগৃহীত

কুমিল্লা প্রতিনিধি :

কুমিল্লায় শানু বেগম (৪৫) নামে এক নারীকে গলা কেটে হত্যা করার ঘটনা ঘটেছে। ৫ নভেম্বর, মঙ্গলবার ভোরে জেলার আদর্শ সদর উপজেলার কালিরবাজার ইউনিয়নের হাতিগাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শানু বেগম ওই গ্রামের ফরিদ মিয়ার স্ত্রী। 

এদিকে, এই হত্যাকাণ্ডের মূলহোতা দেলোয়ার হোসেন নামে এক যুবককে আটকের পর পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয়রা। ঘাতক দেলোয়ার ওই গ্রামের মৃত আবদুর রহমানের ছেলে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার ভোরে শানু বেগম রান্না ঘরে পিঠা তৈরী করছিলেন। সে সময় তিনি একা ছিলেন রান্না ঘরে। এ সময় হঠাৎ তার রান্নাঘরে প্রবেশ করে প্রতিবেশী দেলোয়ার হোসেন। ভোরবেলায় রান্না ঘরে আসার কারণ জানতে চাইলে দেলোয়ার হোসেন ওই গৃহবধূর উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। এনিয়ে শুরু হয় দু'জনের কথা কাটাকাটি।

এক পর্যায়ে শানু বেগমকে রান্না ঘরে থাকা বটি দিয়ে গলায় আঘাত করে ঘর থেকে পালিয়ে যায় দেলোয়ার। পরে ঘর ও বাড়ির লোকজন গুরুতর আহত শানুকে উদ্ধার করে দ্রুত কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে স্থানীয়রা ঘটনায় জড়িত দেলোয়ার হোসেনকে আটকের পর পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মো. আনোয়ারুল হক জানান, নিহতের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। 

তিনি জানান, হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে অন্য আর কোন কারণ আছে কি-না তা আমরা খতিয়ে দেখছি। তদন্তের পর বিস্তারিত বলা যাবে।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

কুমিল্লা হত্যা

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0224 seconds.