• বিদেশ ডেস্ক
  • ০২ নভেম্বর ২০১৯ ২২:০২:২৯
  • ০২ নভেম্বর ২০১৯ ২২:০২:২৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

যুক্তরাষ্ট্র বলছে ‘বাংলাদেশে জঙ্গি হামলা কমেছে’

ছবি : সংগৃহীত

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে প্রকাশিত ‘কান্ট্রি রিপোর্টস অন টেরোজিম-২০১৮’ শীর্ষক বৈশ্বিক বার্ষিক জঙ্গিবাদবিষয়ক এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জঙ্গি হামলার গতি ও মাত্রা ধারাবাহিকভাবে কমেছে বাংলাদেশে। দেশটির স্থানীয় সময় শুক্রবার পররাষ্ট্র দপ্তরের ওয়েবসাইটে ওই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। সেখানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জঙ্গিবাদ পরিস্থিতি সম্পর্কে পর্যবেক্ষণ তুলে ধরা হয়েছে। প্রতিবেদনে শুধুমাত্র ২০১৮ সালের পরিস্থিতি সম্পর্কে বলা হয়েছে।

কান্ট্রি রিপোর্টস অন টেরোজিম-২০১৮ প্রতিবেদনের বাংলাদেশ অংশে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে বাংলাদেশে জঙ্গি হামলার গতি ও মাত্রা ধারাবাহিকভাবে কমেছে। যদিও পৃথক ঘটনায় একজন সেক্যুলার লেখক খুন ও একজন বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক গুরুতর আহত হয়েছেন। বাংলাদেশের নিরাপত্তাবাহিনী সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান চালিয়ে হামলা পরিকল্পনা নস্যাৎ, সন্দেহভাজন জঙ্গি নেতাদের গ্রেপ্তার, অস্ত্র, গোলাবারুদ ও বিস্ফোরক দ্রব্য জব্দ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ সরকার জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স নীতি’ চালু করেছে। সরকার জঙ্গিবাদ ও জঙ্গিদের ভূ-স্বর্গ হিসেবে বাংলাদেশকে ব্যবহার করতে না দিতে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে এই নীতি অব্যাহত রেখেছে। জঙ্গি হামলার জন্য বাংলাদেশ সরকার স্থানীয় জঙ্গিগোষ্ঠীকে দায়ী করেছে। কিন্তু ২০১৫ সাল  বাংলাদেশে ৪০টি হামলার দায় স্বীকার করেছে ভারতীয় উপমহাদেশের জঙ্গিগোষ্ঠী আল-কায়েদা ইন ইন্ডিয়ান সাব কন্টিনেন্ট (একিউআইএস) ও আইএস।

কান্ট্রি রিপোর্টস অন টেরোজিম বলা হয়েছে, বাংলাদেশ থেকে অনুসারী সৃষ্টি করতে এবং জঙ্গি মতাদর্শ ছড়িয়ে দিতে জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকে ব্যবহার করছে।

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0288 seconds.