• বিদেশ ডেস্ক
  • ০১ নভেম্বর ২০১৯ ২১:৫৪:৪৮
  • ০১ নভেম্বর ২০১৯ ২১:৫৪:৪৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

৪ বছরের ইয়েমেন যুদ্ধে নিহতের সংখ্যা ১০০,০০০

ছবি : সংগৃহীত

 চার বছর ধরে চলা ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধে ১ লাখের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন বলে সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয়েছে।  বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা অনুসরণ করা একটি সংস্থার ডাটা থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার দ্য আর্মড কনফ্লিকট লোকেশন অ্যান্ড ইভেন্ট ডাটা প্রজেক্ট বা এসিএলইডি নামে পরিচিত সংস্থাটি তাদের নতুন প্রতিবেদনে এই তথ্য প্রকাশ করে।  প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, সরাসরি বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে সৌদি জোট যে হামলা করেছে তাতে ১২ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

এসিএলইডি জানায়, চলতি বছর আনুমানিক ২০ হাজার মানুষকে হত্যা করা হয়েছে।  ২০১৮ সালে মৃতের সংখ্যা ছিল ৩০ হাজার ৮০০।

আরব বিশ্বের সবচেয়ে গরীব দেশ হিসেবে পরিচিত ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধ শুরু হয় ২০১৪ সালে।  সেসময় ইরান সমর্থিত শিয়া মতাবলম্বী বিদ্রোহী গোষ্ঠি হুতিরা ইয়েমেনের কেন্দ্রীয় এবং উত্তরাঞ্চল নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেয়।  এর ফলে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত দেশটির প্রেসিডেন্ট আব্দু রাব্বুহ মনসুর হাদি ক্ষমতাচ্যুত হয়ে পড়েন।   

পরবর্তীকালে তিনি সৌদি আরব পালিয়ে যান।  এই ঘটনার কয়েক মাস পরে ২০১৫ সালের মার্চে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনী হুতিদের বিরুদ্ধে বিমান হামলার মাধ্যমে ইয়েমেন যুদ্ধের সূত্রপাত ঘটায়।  বিশ্বব্যাপী নিন্দা সত্ত্বেও রক্তক্ষয়ী এই যুদ্ধ এখনও পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে।

সৌদি জোট বাহিনী স্কুল-কলেজ, হাসপাতাল এমনকি বিয়ের অনুষ্ঠানেও বিমান হামলা করে হাজার হাজার বেসামরিক মানুষ হত্যা করেছে।  অপরদিকে হুতিরাও ড্রোন এবং ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে সৌদি আরবের বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা করেছে। এছাড়া লোহিত সাগরে সৌদি জাহাজকেও হামলার লক্ষ্যবস্তু করেছে তারা।   

নির্মম এই যুদ্ধের সবচেয়ে বড় শিকার হচ্ছেন বেসামরিক নাগরিকরা।  জাতিসংঘ ইয়েমেন যুদ্ধকে বিশ্বের সবচেয়ে নিকৃষ্ট মানবিক সংকট বলে উল্লেখ করেছে।  

বাংলা/এফকে  

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ইয়েমেন যুদ্ধ এসিএলইডি

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0275 seconds.