• বিদেশ ডেস্ক
  • ০১ নভেম্বর ২০১৯ ২১:৪৮:৪৬
  • ০১ নভেম্বর ২০১৯ ২১:৪৮:৪৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

৫ নভেম্বর পর্যন্ত স্কুল বন্ধের নির্দেশ দিল্লি সরকারের

ছবি : সংগৃহীত

ভারতের রাজধানীতে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন শহরের মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজিরিওয়াল। মৌসুমের সবচাইতে খারাপ বাতাস প্রবাহের তৃতীয় দিনে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার এমনটি বলে খবর প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম রয়টার্স।

১ নভেম্বর, শুক্রবার সকাল থেকে সারা শহরে স্কুলগামী বাচ্চাদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেছে দিল্লি সরকার। প্রতিটি বাচ্চাকে দুটি করে মাস্ক দেয়া হয়েছে।

দিল্লির পার্শ্ববর্তী অঙ্গরাজ্যগুলোর খামারে, খামারিদের আগুন দেয়ার কারণে সৃষ্টি হয় ধোঁয়ার। এই ধোয়া দিল্লি শহরে প্রবেশ করায় ধুলা এবং ধোঁয়ার সংমিশ্রণে এই বায়ু দূষণের সূচনা। আজ সকালে, হিন্দিতে এক টুইট বার্তায় কেজিরিওয়াল স্কুল বন্ধের ঘোষণা দেন।

এএনআইয়ের এক প্রতিবেদনের বরাতে রয়টার্স জানায়, সরকার কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত পরিবেশ প্যানেল, দিল্লির বায়ু দূষণের কারণে শহরে জরুরি অবস্থা  ঘোষণা করেছে।

এএনআই সরকারী  চিঠির বরাত দিয়ে জানিয়েছে, ‘এটি জনস্বাস্থ্যের জরুরি অবস্থা, কারণ, বায়ু দূষণ এখন বিপজ্জনক এবং বিশেষত বাচ্চাদের স্বাস্থ্যের উপর তা  বিরূপ প্রভাব ফেলবে।’

পরিবেশ দূষণ নিয়ন্ত্রন বোর্ড প্রায় ৫০০’র বেশি সমীক্ষা চালিয়ে একটি সূচক পেয়েছে যা, পি.এম (পার্টিকুলেট ম্যাটার) ২.৫ এর মাত্রা পরিমাপ করে। পি.এম হল এক ধরনের ক্ষুদ্র কণা যা ফুসফুসের গভীরে প্রবেশ করতে সক্ষম।

মাত্রা যদি ৪০০’র বেশি হয় তবে তা গুরুতর পরিস্থিতি নির্দেশ করে। যেখানে সুস্থ ফুসফুসে আক্রান্ত হওয়াদের পাশাপাশি শ্বাসকষ্টজনিত অসুস্থদেরও ঝুঁকি রয়েছে।

এই সঙ্কট নিরসনে দিল্লি সরকার আগামী সপ্তাহ থেকে ব্যক্তিগত যানবাহনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পারে।

বাংলা/এসজে

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0277 seconds.