• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৭ অক্টোবর ২০১৯ ১০:৩২:১১
  • ২৭ অক্টোবর ২০১৯ ১০:৩৩:১১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

মৃত্যুদণ্ড কার্যকর ১২ শিশুর, অপেক্ষায় আরো ৯০

ছবি : সংগৃহীত

ইরানে ২০১৮ থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত ১২ শিশুর মৃতুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। জাতিসংঘের হিসাব অনুসারে মৃত্যুর দ্বার প্রান্তে রয়েছে আরো ৯০ জন শিশু। গত বছর দেশটিতে ২৫৩ জনকে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়, যার মধ্যে ৭ জনই শিশু। 

বৃটেন ভিত্তিক আইরিশ গণমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট’র এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে আসে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক বিশেষ তদন্তকারী কর্মকর্তা জাভেদ রেহমান বলেন, ‘আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গ করলেও নিজের দেশের আইন ঠিক রেখেছে ইরান।’

ইরানের আইন অনুসারে সকলেই সমান এবং ‘চোখের বদলে চোখ’ এই নীতি অনুযায়ী পুর্ন বয়স্ক হবার পর শিশুদেরও খুনের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড দেয়া যায়। পূর্নবয়স্ক ছেলেদের ক্ষেত্রে বয়স ১৫ এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে ৯ বছর, যা অত্যন্ত কম।

এ বছর যাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছিল তাদের মধ্যে একজন হলেন ১৭ বছরের নারী জেইনাভ সেকানভান্ড। স্বামীকে হত্যা করার অপরাধে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়। কিন্তু তার স্বামীর সহিংসতার ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি। 

জাভেদ রেহমান আরো বলেন যে, ‘মেয়েটির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ায় তিনি বেশ আতঙ্কিত এবং আন্তর্জাতিক আইনের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ইরান সরকারের উচিৎ এ ধরণের আইনী ব্যবস্থা পরিবর্তন করা।’ 

এছাড়াও জাতিসংঘ ২০১৩ সালে একটি নীতি প্রণয়ন করা হয় যেখানে আদালতকে বলা হয়, না বুঝে কোনো বড় অপরাধ করলে শিশুদের মৃত্যুদণ্ড শাস্তি দেয়া থেকে বিরত থাকতে।

বাংলা/এসজেবি

সংশ্লিষ্ট বিষয়

মৃত্যুদণ্ড শিশু ইরান

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0236 seconds.