• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৮ অক্টোবর ২০১৯ ০৯:৪২:৪৯
  • ০৮ অক্টোবর ২০১৯ ০৯:৪৮:৩৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

আবরার হত্যা : ১১ ছাত্রলীগ নেতা স্থায়ী বহিষ্কার

ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার হোসেন ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় শেরে বাংলা হলের ১১ ছাত্রলীগ নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এ হত্যায় জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়ায় তাদের সাংগঠনিকভাবে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়।

এ বিষয়ে সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল-নাহিয়ান খান বলেন, ‘আমরা যে তদন্ত কমিটি গঠন করেছি, সেই তদন্ত কমিটি প্রাথমিকভাবে হত্যাকাণ্ডের সাথে ১১ জনের জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছে। তাদের সাংগঠনিকভাবে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।’

পরবর্তীতে তদন্ত করে যদি এ ঘটনার সাথে আর কারো সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়, তাদের বিরুদ্ধেও সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি। 

তার ভাষ্য, ‘কেউ যদি ব্যক্তিগতভাবে কোনো অপরাধ করে থাকে তার দায়ভার সংগঠন তথা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নিবে না।’

তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অনুরোধ দ্রুত এ ঘটনার সাথে জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় এনে এদের সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিতেরও আহ্বান জানান।

বুয়েটের বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতারা হলেন- সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল, সহসভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদি হাসান রবিন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, সাহিত্য সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, উপসমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল, উপদফতর সম্পাদক মুজতবা রাফিদ, সদস্য মুনতাসির আল জেমি, সদস্য এহতেমামুল রাব্বি তানিম, সদস্য মুজাহিদুর রহমান।

গতকাল ৭ অক্টোবর, সোমবার ভোর চারটার দিকে রাজধানীর চকবাজারে অবস্থিত বুয়েটের শেরেবাংলা হলের উত্তর ব্লকের ২য় তলার সিঁড়ি থেকে আবরারের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ফেসবুকে ভারতবিরোধী লেখালেখি করায় ‘শিবির’ তকমা দিয়ে আরবারকে নির্মমভাবে পেটায় ওই হল শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। প্রায় ৭ ঘণ্টার নির্যাতনে প্রাণ হারান আবরার।

বাংলা/এসএ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0247 seconds.