• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৪ অক্টোবর ২০১৯ ১৯:১৫:৫২
  • ০৪ অক্টোবর ২০১৯ ১৯:১৫:৫২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

বিক্ষোভে মুখোশ নিষিদ্ধ করেছে হংকং

ছবি : সংগৃহীত

টানা ৪ মাস ধরে চলা সহিংস বিক্ষোভ দমনে যেকোন ধরণের সমাবেশ-বিক্ষোভে মুখোশ নিষিদ্ধ করেছে চীনের আধা-স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল হংকং। অর্থনৈতিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চলটিতে স্বৈরতন্ত্র চর্চা করতেই এই পদক্ষেপ নিয়েছে বলে দাবি বিরোধী দলের।

বিবিসি জানায়, গনতন্ত্রপন্থী বিক্ষোভকারীদের ব্যাপারে ঔপনিবেশিক যুগের এই জরুরি আইন প্রয়োগ করেছে দেশটির সরকার। শনিবার থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। বিক্ষোভে ক্রমাগত শিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা সরকারের জন্য উদ্বেগজনক। বর্তমানে বিক্ষোভে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি ২৫ শতাংশ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ৩৮ শতাংশ হয়েছে। তারা বিভিন্ন সহিংস কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছে। দেশটির সরকার মনে করছে, এই নিষেধাজ্ঞার কারণে বিক্ষোভে শিক্ষার্থী উপস্থিতির হার অনেক কমবে। 

শুক্রবার সকালে মন্ত্রিসভার সঙ্গে বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নেন হংকংয়ের নির্বাহী প্রধান ক্যারি ল্যাম। বিক্ষোভ চলাকালে মুখোশ নিষিদ্ধ করতে জরুরি নিয়ন্ত্রণ অধ্যাদেশ জারি করা উচিত কি না সে বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়।

মুখোশ নিষিদ্ধ সম্পর্কে দেশটির নিরাপত্তা বিষয়ক সেক্রেটারি জন লি বলেন, অনুমোদিত এবং অনুমোদিত র‌্যালিসহ যেকোন সমাবেশ এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকবে। এছাড়া যেকোন ধরণের ফেস পেইন্টসহ মুখোশ পড়া যাবে না। তবে চিকিৎসা অথবা পেশার কারণে যেকেউ মুখোশ পড়তে পারবে। তারা এই নিষেধাজ্ঞার আওতাভুক্ত থাকবে না। 

নির্বাহী প্রধান ক্যারি ল্যাম বলেন, হংকংয়ে সহিংসতার ঘটনা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা জনগণের মধ্যে ভীতির সঞ্চার করছে। এ কারণেই মুখোশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। 

গত মঙ্গলবার চীনের কমিউনিস্ট শাসনের ৭০ বছর পূর্তি উপলক্ষে দেশটির স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল হংকংয়ে ব্যাপক বিক্ষোভ ও সংঘর্ষ চূড়ান্ত আকার ধারণ করে। এদিন হংকংয়ে ছাতা নিয়ে, মুখোশ পরে দলে দলে বিক্ষোভকারী জড়ো হতে থাকেন। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ কাদানে গ্যাসের শেল ও জলকামান থেকে পানি ছোড়ে। পুলিশকে লক্ষ্য করে বিক্ষোভকারীরা প্রজেক্টাইল ও পেট্রলবোমা ছুড়েছেন। 

পুলিশের গুলিতে এক শিক্ষার্থী গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভে ফুঁসে উঠে বিক্ষোভকারীরা। হাজার হাজার শিক্ষার্থী রাস্তায় নেমে এ ঘটনার প্রতিবাদ করে। এছাড়া, পুলিশের ছোড়া রাবার বুলেটের আঘাতে ইন্দোনেশিয়ার এক সাংবাদিকের ডান চোখ স্থায়ীভাবে অন্ধ হয়ে গেছে।

এর পরই মুখোশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পরিকল্পনা করে সরকার।

টানা চার মাস ধরে দেশটিতে ব্যাপক বিক্ষোভ চলছে। এখনও পর্যন্ত ২৬৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আহত হয়েছে ৩০ জনের অধিক।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

হংকং

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0205 seconds.