• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৩ অক্টোবর ২০১৯ ১৩:০১:৪১
  • ০৩ অক্টোবর ২০১৯ ১৩:০১:৪১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

দুই সহযোগীসহ ৪ দিনের রিমান্ডে সেলিম

ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর গুলশান থানার মাদক মামলায় ‘অনলাইন ক্যাসিনো সম্রাট’ সেলিম প্রধান ও তার দুই সহযোগীর চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। রিমান্ডে যাওয়া অপর দুই আসামি হলেন- আক্তারুজ্জামান ও রোকন।

আজ ৩ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইসলাম তাদের রিমান্ডে নেয়ার আদেশ দেন। রিমান্ড শুনানির আগে ঢাকা মহানগর হাকিম ধীমান চন্দ্র মণ্ডল মাদক আইনে করা মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেন।

গতকাল ২ অক্টোবর, বুধবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম আসামিদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। আদালত আবেদনের ওপর শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেন।

আজ আসামিদের আদালতে হাজির করা হলে প্রথমে গ্রেপ্তার দেখানোর বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মন্ডল গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেন।

এরপর রিমান্ডের বিষয়ে শুনানিতে আসামি পক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল করে জামিনের আবেদন করেন। আর রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী হেমায়েত উদ্দিন খান রিমান্ড মঞ্জুরের আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইসলাম জামিন নামঞ্জুর করে প্রত্যেক আসামিকে চার দিন করে রিমান্ডে নেয়ার আদেশ দেন।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর, সোমবার দুপুরে দেশত্যাগের সময় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সেলিম প্রধানকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার গুলশানের কার্যালয় এবং বনানীর বাসায় অভিযান চালানো হয়। 

এ অভিযানে ৪৮ বোতল বিদেশি মদ, নগদ ২৯ লাখ টাকা, ২৩টি দেশের মোট ৭৭ লাখ সমমূল্যের বৈদেশিক মুদ্রা, ১২টি পাসপোর্ট, ২টি হরিণের চামড়া, ৩টি ব্যাংকের ৩২টি চেক এবং অনলাইন গেমিং পরিচালনার একটি বড় সার্ভার জব্দ করা হয়। নিজ বাসায় হরিণের চামড়া রাখার অপরাধে তাকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আর গতকাল ২ অক্টোবর, বুধবার গুলশান থানায় তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ও মানি লন্ডারিং আইনে দুটি মামলা করে র‌্যাব।

বাংলা/এসএ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0221 seconds.