• বিনোদন ডেস্ক
  • ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৩:০২:৫৭
  • ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৩:০২:৫৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

কান্দিল বালুচ হত্যায় ভাইয়ের যাবজ্জীবন

ছবি : সংগৃহীত

পাকিস্তানের কিম কার্দাশিয়ান খ্যাত মডেল কান্দিল বেলুচ হত্যায় তার ভাইকে যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছে আদালত। পারিবারিক সম্মান রক্ষায় ২০১৬ সালে কান্দিলকে খুন করেন তার আপন ভাই মুহাম্মদ ওয়াসিম।

হত্যার তিন বছর পর গতকাল ২৭ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার ওয়াসিমকে যাবজ্জীবন সাজা দিয়ে রায় দেন দেশটির আদালত। রায়ে ওয়াসিম ছাড়াও আরো ছয়জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

যাদের মধ্যে ছিলেন দেশটির বিখ্যাত ইসলামী গবেষক মুফতি আব্দুল কাভি। এছাড়া কান্দিলের আরেক অভিযুক্ত ভাই আরিফ এখনো পলাতক রয়েছেন।

২০১৬ সালে সাংবাদিকদের সামনেই বোনকে হত্যার অভিযোগ স্বীকার করেন মুহাম্মদ ওয়াসিম। পুলিশের পক্ষ থেকে ওই সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছিল। হত্যার কারণ হিসেবে ওয়াসিম তখন বলেছিলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার বোনের উপস্থিতি পরিবারের অসম্মান এনেছিল।’

পরিবারের সম্মান রক্ষা করতেই কান্দিল বেলুচকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। তবে কান্দিলের পরিবার তার ভাইয়ের চেয়ে এই খুনের জন্য মুফতি আব্দুল কাভিকে বেশি দায়ী মনে করে। 

তাদের অভিযোগ, তিনিই এই হত্যাকাণ্ডের পেছনে কলকাঠি নেড়েছেন। কারণ হত্যাকাণ্ডের কিছুদিন আগে তিনি কান্দিলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে সেলফি তুলেছিলেন, যা নিয়ে পরবর্তীতে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল তাকে।

দণ্ডপ্রাপ্ত ওয়াসিমের আইনজীবী সরদার মেহমুদ জানান, এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আবেদন করার সুযোগ রয়েছে। তারা সেই আবেদন করবেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খোলামেলা ছবি ও সোজাসাপ্টা কথা বলে দেশটিতে আলোচিত ছিলেন কান্দিল। মুলতানের এক ভাড়া বাড়িতে ২০১৬ সালের ১৬ জুলাই তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।

বাংলা/এসএ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0198 seconds.