• ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২১:৫০:১৬
  • ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২১:৫০:১৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

ভাবীকে কোপালেন দেবর!

ছবি : সংগৃহীত

লক্ষীপুর প্রতিনিধি :

নিজ ভাবি স্বপ্নাকে কুপিয়ে জখম করেছে দেবর সুমন। শনিবার দুপুরে চিকিৎসাধীন স্বপ্না সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন। আহত স্বপ্না লক্ষীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার চরমোহনা ইউনিয়নের সর্দার বাড়ির আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী। এর আগে শুক্রবার সকালে তাদের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, চরমোহনা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড সর্দার বাড়ির ওমান প্রবাসী আনোয়ারের স্ত্রী স্বপ্না বেগম তার এক বছর বয়সী সন্তানকে নিয়ে বসবাস করেন শ্বশুর বাড়িতে।

স্বপ্না বেগম জানান, বৃহস্পতিবার রাতে দেবর সুমন গভীর রাতে ভাবির ঘরে জোরপূর্বক প্রবেশ করে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করলে তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে দেবর পালিয়ে যায়, যাওয়ার আগে প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

এরই সূত্র ধরে শুক্রবার সকালে রান্নাঘরে ঢুকে স্বপ্না বেগমকে অতর্কিতভাবে কুপিয়ে জখম করে দেবর সুমন। ভাবি প্রাণ বাঁচাতে পার্শ্ববর্তী একটি ঘরে আশ্রয় নিলে সে ঘরের দরজা ভেঙেও তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। স্থানীয়রা তাকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। তার মাথা, পায়ে, হাতে জখমের চিহ্ন রয়েছে।

এদিকে অভিযুক্ত সুমন হোসেনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, ‘ভাই বিদেশ থাকার সুবাধে ভাবি স্বপ্না বেগমের সাথে বহিরাগত লোকজনের সাথে অবৈধ সম্পর্ক থাকায় তাকে এ বিষয় নিষেধ করলে তিনি আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালায়।’

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শফিক পাঠান বলেন, ‘ঘটনাটি কেউ আমাকে জানাইনি, খোঁজ খবর নিয়ে প্রশাসনের সহযোগিতায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

বাংলা/এএএ

সংশ্লিষ্ট বিষয়

লক্ষীপুর জখম

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0222 seconds.