• বাংলা ডেস্ক
  • ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৬:১৩:১৩
  • ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২০:২২:৫৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

‘আমরা তো এখনো ছোট মানুষ, ভুল শোধরাতে চাই’

শোভন ও রাব্বানী। ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসন্তোষকে যৌক্তিক ও সঠিক মেনে নিয়ে নিজেদের ভুলগুলো শুধরে নিতে সময় চেয়েছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা। দু'জনই বলছেন, ছাত্রলীগের বিষয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার যেকোন সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত ও শিরোধার্য।

গণভবনে মনোনয়ন বোর্ডের সভায় ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতার নানা কর্মকাণ্ড নিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতির বিরক্তি প্রকাশের খবরে নিজেদের ব্যর্থতার কথা স্বীকার করেছেন ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, ‘সন্তানকে দিক নির্দেশনা দেয়ার জন্য তিনি শাসন করবেন এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু, এটা নিয়ে অনেকের অতি উৎসাহিত হওয়ার কিছু নেই। সেটা হবে আমাদের উৎসাহ। আমরা তো এখনও ছোট মানুষ, আমাদের যে ভুলত্রুটিগুলো আছে, সেগুলো যেন আমরা শুধরে দলটাকে আরও সুন্দর করে চালাতে পারি, সেটাই হয়তোবা তিনি চিন্তা করছেন।’

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘নেত্রী আমাদের মা, অবশ্যই আমাদের ত্রুটি বিচ্যুতিগুলো স্বীকার করে নিয়ে এই অনুতাপবোধ থেকে তার কাছে আমরা ক্ষমা চেয়ে একেবারে বলবো যে, আমরা আরো ভালও করে কাজ করতে চাই। তিনি কষ্ট পেয়েছেন এটা আমরা নির্দ্বিধায় বুঝতে পারছি।’

ব্যর্থতা ছাড়াও আলোচনায় উঠে আসে দুই ছাত্রনেতার নানান অনিয়মের কথাও। ছাত্রলীগ সভাপতি আরো বলেন, ‘কিছু ভুলত্রুটি হয়। নেত্রী আমাদের কমিটি দিয়েছেন। নেত্রী যখন ইচ্ছা তখন ভেঙ্গে দিয়ে নতুন করে কমিটি দিবেন। এখানে আসলে আমাদের বলার কিছু নাই। নেত্রী যা করবেন সেটাই ঠিক।’

গোলাম রাব্বানী আরও জানান, ‘তিনি অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এখন এটা আমাদের চ্যালেঞ্জ, সবাইকে একসঙ্গে থেকে ছাত্রলীগের অভিন্ন পরিবারকে একত্রে থেকে শেখ হাসিনার যে প্রত্যাশার ছাত্রলীগ তা গড়ার জন্য এই চ্যালেঞ্জটা নিতে হবে।’

কয়েক বছরের প্রথা ভেঙে ২০১৮ সালে শোভনকে সভাপতি ও রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয় ঐতিহ্যবাহী এই ছাত্র সংগঠনটির।

সূত্র : ডিবিসি নিউজ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0260 seconds.