• ফিচার ডেস্ক
  • ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১২:০৯:০১
  • ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১২:০৯:০১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

চিপস-ফ্রেঞ্চফাইয়ে অন্ধত্বের ঝুঁকি!

ছবি : সংগৃহীত

প্রায়ই শিশুরা চিপস-ফ্রেঞ্চফ্রাইয়ের মতো মুখরোচক খাবারের জন্য বায়না ধরে। তাদের বায়নায় অতিষ্ট হয়ে অভিভাবকেরা তাদের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হন এসব খাবার। কিন্তু এসব মুখরোচক খাবারের পুষ্টিমান যাচাই না করেই শিশুদের হাতে তুলে দেয়ায় দেখা দেয় স্বাস্থ্যঝুঁকি। সম্প্রতি ফ্রেঞ্চফ্রাই-চিপসপ্রেমী এক ব্রিটিশ শিশুর দৃষ্টিশক্তি হারানোর ঘটনায় এ বিষয়টি আবারো সামনে এসেছে।

বিবিসি জানায়, এক ব্রিটিশ কিশোর ছোটবেলা থেকেই ফ্রেঞ্চফ্রাই-চিপস খুব পছন্দ করতো। একটা সময় শুধু ফ্রেঞ্চফ্রাই-চিপস আর পাউরুটি খেয়েই দিন পার করতে শুরু করে ছেলেটি। তার খাদ্যতালিকায় মাঝে মধ্যে দু-এক টুকরা মাংসও যদিও থাকতো, কিন্তু অন্যান্য পুষ্টিকর খাবার বাদ পড়ে যায়।

দিনের অধিকাংশ সময় এসব মুখরোচক খাবারে আসক্ত শিশুটির স্বাস্থ্যও ছিলো বেশ ভালো। কিন্তু দীর্ঘদিনের অনিয়ম, অপুষ্টিতে বিগত তিন বছর ধরে ক্রমশ তার দৃষ্টিশক্তি ক্ষীণ হয়ে আসতে থাকে। শেষমেশ এখন সবকিছুই সে দেখছে ঝাপসা চোখে।

দীর্ঘদিনের অনিয়ম, অপুষ্টিতে দৃষ্টিশক্তি হারানো সতেরো বছর বয়সী ওই কিশোরটির বাস ইংল্যান্ডের দক্ষিণ-পশ্চিমের শহর ব্রিস্টলে। খবরে জানা যায়, স্থানীয় চক্ষু চিকিৎসকদের দেখানোর পর ব্রিস্টল চক্ষু হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় ওই কিশোরকে। 

হাসপাতালের চিকিৎসক ডানাইজ আতান জানান, পরীক্ষায় কিশোরের শরীরে ভিটামিন বি-১২, ভিটামিন-ডি, কপার, সেলেনিয়াম-সহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ভিটামিন এবং খনিজ দ্রব্যের ঘাটতির প্রমাণ পাওয়া যায়। মারাত্মক অপুষ্টিজনিত সমস্যায় ভুগছিল সে। 

শুধু তাই নয়, ওই কিশোরটির হাড়েও খনিজের পরিমাণ আশঙ্কাজনক হারে কম পাওয়া গেছে। সে ‘নিউট্রিশনাল অপটিক নিউরোপ্যাথি’ নামের এক রোগে আক্রান্ত বলে জানান ওই চিকিৎসক।

ব্রিস্টলের এই কিশোরের ঘটনাটি এক প্রবন্ধে প্রকাশ করে স্বাস্থ্য বিষয়ক বিখ্যাত মার্কিন পত্রিকা ‘অ্যানালস অব ইন্টারনাল মেডিসিন’। পত্রিকাটি এ ঘটনার প্রেক্ষিতে চক্ষু বিশেষজ্ঞদের মতামতও নেয়। সেই প্রবন্ধে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানান, ‘নিউট্রিশনাল অপটিক নিউরোপ্যাথি’ রোগের জন্য দায়ী দীর্ঘদিনের অনিয়ম, অপুষ্টি। এই কিশোরও একই কারণে দৃষ্টিশক্তি হারাতে বসেছে। 

অপুষ্টির শিকার হওয়া থেকে বাঁচতে প্রতিদিন সুষম আহারের মাধ্যমে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন ও খনিজ গ্রহণ করা জরুরি বলে মনে করেন ওই চিকিৎসকেরা। তারা জানান, মাল্টি ভিটামিন ট্যাবলেট বা ওষুধ খেয়ে সুষম আহারের সমতুল্য পুষ্টি পাওয়া সম্ভব নয়। অবৈজ্ঞানিক এবং অনিয়ন্ত্রিত ডায়েট অন্ধত্ব ছাড়াও অ্যালার্জি, অটিজমসহ একাধিক রোগ ডেকে আনতে পারে।

তবে প্রাথমিক পর্যায়ে এ রোগ নির্ণয় করা গেলে চিকিৎসার মাধ্যমে তা নিরাময় করা সম্ভব। তাই চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে, প্রতিদিনের খাদ্যতালিকা থেকে আজই বাদ দিন অপুষ্টিকর ফ্রেঞ্চফ্রাই-চিপস জাতীয় খাবার। আর যুক্ত করেন নিন পুষ্টিকর, ভিটামিন, খনিজ সমৃদ্ধ খাবার।

বাংলা/এসএ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0205 seconds.