• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২১:০৩:২৩
  • ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২১:০৩:২৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

শিশুদের জন্য বাংলা কার্টুনে দেশীয় সংস্কৃতি

ছবি: সংগৃহীত

বর্তমানে আধুনিক যুগে প্রযুক্তি ছড়িয়ে গেছে সব বয়সী মানুষের মাঝে। শিশু কিংবা বৃদ্ধা সবাই কেউ প্রযুক্তির বাইরে নয়। বিশেষ করে  শিশুদের খেলার নিত্যসঙ্গী হচ্ছে স্মার্টফোন কিংবা ট্যাব। বেশিরভাগ শিশুই স্মার্ট ডিভাইসে কার্টুন দেখে বা গেম খেলে সময় কাটাতে পছন্দ করে। জ্ঞান অর্জন আর পারিপার্শ্বিক পরিবেশের সঙ্গে পরিচিত করাতেও মা-বাবারা শিশুদের কার্টুন দেখাতে অভ্যস্ত করে থাকেন।

বলতে গেলে একরকম স্মার্ট ডিভাইসেই লেখাপড়ায় হাতে খড়ি হয় এখনকার শিশুদের। আর এ বিষয় মাথায় রেখেই বাংলা ভাষায় শিশুদের জন্য কার্টুন তৈরি শুরু করেছিলেন একদল তরুণ। পরে সেগুলো ইউটিউব চ্যানেলে প্রচার করেন। শিশুদের নিয়ে তৈরি এই চ্যানেলটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘বিডি কিডস টিভি’। এরমধ্যে শিশুদের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে চ্যানেলটি। মাত্র ২ বছরের ব্যবধানে এই চ্যানেলটি ইউটিউব কর্তৃক ভেরিফাইড এবং সিলভার বাটনও অর্জন করেছে। ২০১৭ সালে বিডি কিডস টিভি প্রতিষ্ঠা করেন খাইরুল বাশার নয়ন এবং সহ-প্রতিষ্ঠাতা মহিউদ্দিন মোস্তফা।

এটি অ্যাডভারটাইজিং কোম্পানি ফিল্ম ক্যাসল ওয়ার্ল্ডওয়াইড লিমিটেডের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। জানা গেছে, এটিই বাংলাদেশের প্রথম শিশুতোষ ভিত্তিক বৃহত্তর কার্টুন ইউটিউব চ্যানেল। এর জনপ্রিয় কার্টুনগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘স্বাধীনতা যুদ্ধ ১৯৭১’, ‘ফেব্রুয়ারির গান’, ‘কাক ও কলসি’, ‘ছুটি’, ‘ইতল-বিতল’, ‘ট্রেন’, ‘আতা গাছে তোতা পাখি’, ‘কাজলা দিদি’, ‘আমাদের ছোট নদী’, ‘আমাদের দেশ’, ‘বাংলা বর্ণমালা’ প্রভৃতি। এছাড়াও এখানে ছবি আঁকার কলাকৌশলের ওপরও বেশ কিছু কার্টুন রয়েছে। 

নেলটির কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠাতা খাইরুল বাশার নয়ন বলেন, ‘বিশ্বে প্রতিনিয়ত শিশুদের জন্য নিত্যনতুন সব কার্টুন সিরিজ নির্মিত হচ্ছে। কিন্তু বাংলাভাষায় কার্টুন সিরিজের সংখ্যা খুবই কম। শিশুরা বিদেশি কার্টুনগুলো দেখে অন্য দেশের সংস্কৃতি শিখছে। শিশুদের এ থেকে বাঁচাতেই আমরা চ্যানেলটির কার্যক্রম শুরু করি। দেশীয় সংস্কৃতি, কৃষ্টি ধরে রেখে শিশুদের প্রতিভার বিকাশ ঘটানোই আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য।’

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিডি কিডস টিভি শিশু

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0200 seconds.