• বাংলা ডেস্ক
  • ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১১:৪৭:১৬
  • ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১১:৫৬:১০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

দেশে হৃদরোগে নয়, বেশি মানুষের মৃত্যু হবে ক্যান্সারে

ছবি : ডয়েচে ভেলে থেকে নেয়া

হৃদরোগের চেয়ে ক্যান্সারে সবচেয়ে বেশি মানুষ মৃত্যুবরণ করছে। বর্তমানে বিশ্বের ধনী দেশগুলোতে এটা লক্ষ্য করা গেলেও অদূর ভবিষ্যতে সারা পৃথিবীতে একই প্রবণতা দেখা যাবে৷ এতদিন সবচেয়ে বেশি  মৃত্যুর কারণ ছিল হৃদরোগ৷ ল্যানসেট মেডিকেল জার্নালে প্রকাশিত চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের দুটি সমীক্ষায় এমন তথ্য উঠে আসে। এই তালিকায় বাংলাদেশেরেও নাম রয়েছে।

বিশ্বে এখনো মধ্যবয়সীদের মধ্যে ৪০ শতাংশের মৃত্যুর কারণ হৃদরোগ৷ কিন্তু ধনী দেশগুলিতে এর প্রায় দ্বিগুণ পরিমাণ লোক ক্যানসারে মারা যাচ্ছেন৷ রয়টার্স’র বরাত দিয়ে এমন খবর প্রকাশ করেছে ডয়েচে ভেলে।

এ বিষয়ে কানাডার লাভাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক গিলেস ড্যাজেনাইস বলেন, ‘আমাদের রিপোর্টে দেখা গিয়েছে, ২০১৭ সালে বিশ্বজুড়ে ২৬ শতাংশ লোক ক্যান্সারে মারা গিয়েছেন৷ এক্ষেত্রে এক নম্বরে ছিল হৃদরোগ ও দু’নম্বরে ক্যান্সার৷ কিন্তু হৃদরোগে মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমশ কমছে, তাই কয়েক দশকের মধ্যে ক্যান্সারেই সবথেকে বেশি লোক মারা যাবেন৷'

বাংলাদেশসহ ভারত, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, কানাডা, চিলি, চীন, পোল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ফিলিপিন্স, কলম্বিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার মত দেশ গুলোতেও এই সমীক্ষা পরিচালনা করা হয়।

গত দু’বছর আগে অর্থাৎ ২০১৭ সালে পাঁচ কোটি ৫০ লাখ মানুষ মারা গিয়েছিলেন৷ তার মধ্যে এক কোটি ৭৭ লাখ হৃদরোগে মারা গিয়েছেন৷ আর ৭০ শতাংশ হৃদরোগের কারণ ছিল উচ্চ রক্তচাপ, ধূমপান, খাদ্যাভ্যাস, বেশি মাত্রায় কোলেস্টোরেল এবং জীবনধারনের অভ্যাসগত ত্রুটি৷

ধনী দেশগুলিতে ওষুধ খাওয়ার ফলে উচ্চ রক্তচাপ ও কোলেস্টোরেলের পরিমাণ কম থাকছে৷ ফলে হৃদরোগে মৃত্যুর সংখ্যাও অনেকটা কমে গিয়েছে৷  কিন্তু গরিব দেশগুলোতে অনুন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থার কারণে হৃদরোগে মৃত্যুর সংখ্যা যথেষ্ট বেশি৷ গরিব ও মাঝারি আয়ের দেশগুলিতে হার্ট অ্যাটাক হলে তাড়াতাড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা ও জরুরি ওষুধের স্বল্পতার কারণে মৃতের সংখ্যাও বাড়ছে৷

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0200 seconds.