• বিদেশ ডেস্ক
  • ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২১:৫৮:০৪
  • ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২১:৫৮:০৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

ইয়েমেনে সৌদি বিমান হামলায় শতাধিক নিহত

ছবি : সংগৃহীত

ইয়েমেনের একটি আটক কেন্দ্রে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলায় ১০০ জনের বেশি নিহত হন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক রেড ক্রস কমিটি(আইসিআরসি)।   

রবিবার ইয়েমেনের আইসিআরসির প্রতিনিধি প্রধান ফ্রাঞ্জ রচেনস্টাইন ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘আমাদের হিসাব অনুযায়ী শতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। ’

পাশাপাশি তিনি জানান, ধ্বংসস্তূপের নীচে এখনো কেউ বেঁচে আছে কি না তা খুঁজে দেখছে রেডক্রসের কর্মীরা।  তবে বেঁচে থাকার সম্ভাবনা খুবই কম।

চলতি বছর ইয়েমেনে সৌদি জোটের এটিই সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী হামলার ঘটনা।  প্রসঙ্গত, ইয়েমেনের মত দারিদ্রপীড়িত একটি দেশে সৌদি জোটের এধরনের বর্বর হামলা আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে ব্যাপক সমালোচিত।  কিন্তু এসব সমালোচনাকে উপেক্ষা করেই দেশটিতে একের পর এক রক্তাক্ত হামলা করেই যাচ্ছে সৌদি সামরিক জোট।  

এদিকে ইয়েমেনের একজন কর্মকর্তা জানান, দাহমার শহরের একটি কলেজকে কেন্দ্র করেই এই হামলা করা হয়েছে।  হুতি বিদ্রোহীরা বর্তমানে এটিকে আটক কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করছে।

যদিও আটক কেন্দ্রে হামলার ঘটনা অস্বীকার করেছে সৌদি জোট।  তাদের দাবি, সামরিক একটি স্থাপনাকে লক্ষ্য করেই এই হামলা করা হয়।  

নাজেম সালেহ নামে আহত এক বন্দী বলেন, ‘ এসময় মধ্যরাত হবে আমরা ঘুমিয়ে ছিলাম। এসময় বিমান হামলার ঘটনা ঘটে। হয়তো তিন, চার অথবা ছয়বার হামলা করা হয়েছে।  তারা এই কারাগারকে লক্ষ্য করেই হামলা করেছে। ’

এদিকে হুতি পরিচালিত ইয়েমেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইউসুফ আল হাদরি জানান, শনিবার সারারাত ধরে কমপক্ষে ৭ বার তিনটি ভবনে বিমান হামলা করা হয়েছে।  

সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট জানায়, দাহমার এলাকায় ড্রোন এবং ক্ষেপণাস্ত্র রাখার জন্য ব্যবহৃত হুতিদের সামরিক স্থাপনায় আন্তর্জাতিক আইন মেনেই হামলা করা হয়েছে।  বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষার জন্য সব রকম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

বাংলা/এফকে

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0186 seconds.