• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৭ আগস্ট ২০১৯ ২২:০৩:১০
  • ২৮ আগস্ট ২০১৯ ১৪:৩৫:২৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

রিলায়েন্স ও ওয়ালটনের মধ্যে চুক্তি

দেশে এলো গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাস

ছবি : সংগৃহীত

স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশ ও গ্রামীণফোন যৌথভাবে বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এলো এ বছরের বহুল প্রত্যাশিত স্মার্টফোন গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাস। মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) রাজধানীর জিপি হাউসে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নতুন এই ডিভাইসটি উন্মোচন করা হয়। দেশব্যাপি গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাসের জন্য প্রি-অর্ডার করা ক্রেতাদের আজ থেকে ডিভাইস হস্তান্তর শুরু হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে গ্রামীণফোনের সিইও মাইকেল ফোলি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন স্যামসাং বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর স্যাংওয়ান ইয়ুন। এছাড়াও অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার বোমিন কিম; স্যামসাং বাংলাদেশের হেড অব মোবাইল মো. মূয়ীদুর রহমান এবং গ্রামীণফোনের ডেপুটি সিইও ইয়াসির আজমান। উক্ত অনুষ্ঠানে স্যামসাংয়ের সম্মানিত পার্টনারও উপস্থিত ছিলেন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাসে বিশাল ৬.৮ ইঞ্চির স্টেট-অব-আর্ট বাঁকানো ফুল স্ক্রিনের নমনীয় অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে, যা এজ-টু-এজ অনুপাতে ফোনের সামনের অংশ পুরোটাই জুড়ে থাকে। ডিভাইটির পেছনে রয়েছে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ, যার একটি আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা (১৬ মেগাপিক্সেল), একটি ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা (১২ মেগাপিক্সেল), একটি টেলিফটো ক্যামেরা (১২ মেগাপিক্সেল) এবং একটি ডেপথভিশন ক্যামেরা। এছাড়া সেলফি তোলার জন্য ডিভাইসটিতে দেয়া হয়েছে ১০ মেগাপিক্সেলের একটি ফ্রন্ট ক্যামেরা।

স্লিক ও স্লিম ডিজাইনের পাশাপাশি আকর্ষণীয় ডিসপ্লের ডিভাইসটির রয়েছে আরো উন্নত ক্যামেরা, পারফরম্যান্স এবং প্রোডাক্টিভিটি যা গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাস ব্যবহারকারীদের দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা দেবে। পেশাদারিত্ব এবং জীবনব্যবস্থার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে চলে এমন প্রজন্মের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে তৈরি করা গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাস ডিভাইসটি ব্যবহারকারীদের নিজের মতো করে ব্যবহারের ক্ষেত্রে পূর্ণ স্বাধীনতা প্রদানে সক্ষম, যা তাদের সৃজনশীলতা বিকাশে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

এই অংশীদারিত্বের ফলে গ্রামীণফোন ব্যবহারকারীরা ২০ জিবি ডেটা (১০জিবি ফোরজি ডেটা + ১০ জিবি বায়োস্কোপ স্ট্রিমিং) সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ৭ দিন মেয়াদে উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়াও, গ্রাহকরা ১৯৮ টাকার বিনিময়ে ২০ জিবি (১০ জিবি ওপেন ডেটা + ১০ জিবি ফোরজি ডেটা) কিনতে সক্ষম হবেন, যার মেয়াদ সাত দিন। গ্রাহকরা এই অফার সমূহ ৩ মাসে মোট ১২ বার উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়া তারা তিন মাসের জন্য জিপি স্টার প্লাটিনাম প্লাসে উন্নীত হওয়ার সুযোগ পাবেন।

উল্লেখ্য, প্রি-অর্ডারকৃত গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাস ক্রেতারা নিশ্চিত ১০,০০০ টাকা ক্যাশব্যাক উপভোগ করেছেন। এছাড়া তারা মাত্র ৩,৫০০ টাকার বিনিময়ে ওয়ানটাইম স্ক্রীন রিপ্লেসমেন্ট এবং দ্বিতীয় বছরের ওয়ারেন্টি বান্ডেল ক্রয়ের সুযোগ গ্রহণ করেছেন। প্রি-অর্ডার অফারের আওতায়, তারা পেয়েছেন সর্বোচ্চ ১০০,০০০ টাকা পর্যন্ত ডিসকান্ট ভাউচার যা স্যামসাংয়ের যে কোন রিয়েল ফোরকে ইউএইচডি স্মার্ট টিভি ক্রয়ের ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারবেন।

দেশব্যাপি স্যামসাংয়ের সকল শোরুম এবং অনুমোদিত মোবাইল আউটলেটগুলো থেকে গ্যালাক্সি নোট টেন প্লাস ডিভাইসটি ক্রয় করা যাবে ১ লাখ ৪৪ হাজার ৫০০ টাকায়।

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0209 seconds.