• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৪ আগস্ট ২০১৯ ১৭:১৫:০৫
  • ১৪ আগস্ট ২০১৯ ১৭:১৫:০৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

অবরুদ্ধ নুর উদ্ধারের পর হাসপাতালে

ছবি : সংগৃহীত

পটুয়াখালীর গলাচিপায় উলানিয়া বাজারে অবরুদ্ধ থাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের ভিপি নুরুল হক নুরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে পুলিশি পাহারায় পটুয়াখালীর নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ন আহ্বায়ক মুহাম্মদ উল্লাহ মধু। তিনি বাংলা’কে বলেন, ‘বুধবার দুপুরে একটি দাওয়াতের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে উলানিয়া বাজারে সন্ত্রসীদের হামলার শিকার হন ভিপি নুরুল হক নুর। হামলার পর তাকে স্থানীয় উলানিয়া বাজারে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। পরে আমরা নুরকে উদ্ধার করতে যাই। এসময় আমাদের উপরও হামলা করে সন্ত্রাসীরা। আমাদের প্রায় প্রায় ৩০ থেকে ৩৫ জন আহত হন। এসময় নুরকে উদ্ধার করে গলাচিপা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে পুলিশি পাহারায় পটুয়াখালীর নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।’

এর আগে বুধবার দুপুরে একটি দাওয়াতের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে উলানিয়া বাজারে সন্ত্রসীদের হামলার শিকার হন ভিপি নুরুল হক নুর। হামলার পর তাকে স্থানীয় উলানিয়া বাজারে অবরুদ্ধ করে রাখা হয় বলে জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ন আহ্বায়ক মুনতাসির মাহমুদ। 

এদিকে নুরের উপর হামলার পরপরই ফেসবুক লাইভে এসে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক ‍মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন তাকে উদ্ধারের দাবি জানান।

মুনতাসির মাহমুদ ও রাশেদ খানের দেয়া তথ্য অনুযায়ী জানা যায়, বুধবার দুপুরে নুরুল হক নুর তার কয়েকজন ঘনিষ্ঠভাজনদের নিয়ে একটি দাওয়াতের অনুষ্ঠানে যাচ্ছিলেন। পথে গলাচিপার উলানিয়া বাজারে তাদের উপর হামলা চালায় একদল দূর্বৃত্ত। বেলা দুইটার দিকে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলার সময় নুর নিজেকে বাঁচাতে একটি দোকানে আশ্রয় নিলেও সন্ত্রাসীরা ভেতরে গিয়ে মারধর করে। নুরের সাথে কোনো ধরনের যোগাযোগ করা যাচ্ছে না বলে অভিযোগ মুনতাসির মাহমুদ ও রাশেদ খানের।

দুপুর ২টা ৪০ মিনিটে মুনতাসির মাহমুদ বাংলা’কে জানান, নুর এখনো অবরুদ্ধ আছে। হামলার সময় নুর ও তার সঙ্গীদের বহনকারী বেশ কয়েকটি বাইক ভাঙচুর করা হয়। তাদের সাথে থাকা কয়েকটি ডিএসএলআর ক্যামেরাও নিয়ে যায় হামলাকারীরা।

ঘটনা জানাতে গিয়ে মুনতাসির বলেন, ‘নুর ভাই ঈদের ছুটিতে নিজ বাড়িতে আছেন। দাওয়াত খেতে যাওয়ার পথে হঠাৎ কিছু লোক পথ আটকে নুর ভাইসহ সবাইকে বাইক থেকে নামিয়ে রড দিয়ে পেটানো শুরু করে। পেটাতে পেটাতে নুর ভাইকে আলাদা করে ফেলা হয়। পরে পুলিশ আসলেও বর্তমানে ঘটনার প্রকৃত অবস্থা জানা যাচ্ছে না। কারণ কাউকে উনার কাছে যেতে দেয়া হচ্ছে না। কেউ ছবি তুলতে গেলে মোবাইল ভেঙে ফেলার হুমকি দেয়া হচ্ছে।’

মুনতাসির বলেন, ‘আসলে ভিপি নির্বাচিত হবার পর থেকে গত ঈদে এবং এবারো এলাকার লোকজন বিভিন্ন ভাবে নুর ভাইকে সংবর্ধনা দিচ্ছে, তার প্রোগ্রামে মানুষের ঢল নামছে। এলাকায় নুর ভাইয়ের জনপ্রিয়তা অনেকের সহ্য হচ্ছিল না তাই হয়তো এভাবে হামলা করা হলো আজ।’

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0192 seconds.