• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৯ আগস্ট ২০১৯ ১২:২৯:৫২
  • ০৯ আগস্ট ২০১৯ ১৩:৪৪:৪৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

প্রয়োজনে আমি দাঁড়াব, মানুষের অসুবিধা মানব না : মমতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি : আনন্দবাজার থেকে নেয়া

নগরজীবনে ভিআইপি সংস্কৃতির সাথে সবাই পরিচিত। যার সবচেয়ে বেশি শিকার হতে হয় রাজধানীবাসীদের। কারণ ভিআইপি রাস্তায় চলার সময় বন্ধ করে দেয়া হয় অন্য সব যানবাহন। যার ফলে দুর্ভোগে পড়তে হয় সাধারণ মানুষদের। বিশেষ করে অসুস্থ রোগি, অফিস ও স্কুল-কলেজগামীদের ক্ষেত্রে।

এমন পরিস্থিতি উপলব্ধি করলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার চলাচলের পথে পুলিশি নিরাপত্তায় ‘বাড়াবাড়ি’ দেখে একাধিক বার গাড়ি থেকে নেমে পড়লেন তিনি। পুলিশকে সতর্ক করে নির্দেশ দিয়ে বলেন, ‘প্রয়োজনে আমি দাঁড়াব। আমার জন্যে সাধারণ মানুষের যাতায়াতে অসুবিধা হলে আমি মানব না।’

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কলকাতা বিমানবন্দর থেকে শহরে আসার পথে এমন ঘটনা ঘটে। এমন খবর প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজার।

এই দিন মমতা চেন্নাই থেকে কলকাতায় ফেরেন। বিমানবন্দর থেকে শহরে ঢোকার পরে প্রথমে তেঘরিয়া মোড়ের কাছে তার নজরে পড়ে, সার্ভিস রোডে অনেক গাড়ি সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে। তখনই গাড়ি থেকে নেমে ট্রাফিক কর্মীদের তিনি জিজ্ঞাসা করেন, তিনি যাচ্ছেন বলেই কি রাস্তা বন্ধ করে গাড়ি দাঁড় করানো হয়েছে?

সূত্রের বরাত দিয়ে বলা হয়, এরপর মমতা ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন, ‘আগে সাধারণ মানুষ, পরে ভিআইপি।’

প্রায় ১০ মিনিট মুখ্যমন্ত্রী রাস্তায় দাঁড়িয়ে থেকে অন্য গাড়ির যাতায়াত চালু  করে দেন। এ সময় তাকে রাস্তায় দেখে ভিড় বাড়ে। তাদের সঙ্গে কথা বলে আবারো রওনা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। এরপরে তাপুরিয়াঘাটাতেও ট্রাফিক আটকানো হয়েছে দেখে রাস্তায় নেমে পুলিশ কর্মকর্তাদের একই নির্দেশ দেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী মমতার অবশ্য স্পষ্ট নির্দেশ, প্রয়োজনে তিনি কিংবা অন্য ভিআইপি’রা  অপেক্ষা করবেন। ট্রাফিক স্বাভাবিক রাখতেই হবে। সাধারণ মানুষের যেন অসুবিধা না হয়।

প্রসঙ্গত, কিছু দিন আগে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে যাওয়ার সময়েও জেলা পুলিশ কর্মকর্তাদের সতর্ক করে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি।  

তবে তার দলের কতিপয় নেতাদের কেউ কেউ রাস্তা জুড়ে নিরাপত্তা বলয় নিয়ে চলাচল করেন এবং তার জেরে অন্য সব গাড়ি আটকে থাকে বলে সাধারণ মানুষের অভিযোগ।

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0184 seconds.