• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৪ আগস্ট ২০১৯ ০৮:৫২:৩৯
  • ০৪ আগস্ট ২০১৯ ০৮:৫২:৩৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

যুক্তরাষ্ট্রে ওয়ালমার্টের দোকানে বন্দুক হামলায় নিহত ২০

ছবি : বিবিসি থেকে নেয়া

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের ওয়ালমার্টের একটি দোকানে বন্দুকধারীর গুলিতে ২০ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এতে আহত হন বেশ কয়েকজন। আহতদের মধ্যে ২৪ জনকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শনিবার স্থানীয় সময় ১১টায় এল পাসো এলাকার সিয়েলো ভিস্তা শপিং মলে ওয়ালমার্টের ওই দোকানটিতে এই গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে এমন খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।

এই ঘটনায় একজন সন্দেহভাজন শ্বেতাঙ্গকে আটক করেছে পুলিশ। দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে ওই খবরে বলা হয়, আটককৃত ব্যক্তির নাম প্যাটট্রিক ক্রুসিয়াস (২১)। তিনি ডালাসের বাসিন্দা।

এ বিষয়ে টেক্সাস পুলিশ বলে, ‘আটককৃত ওই ব্যক্তি একাই এই হত্যাকাণ্ড চালিয়েছেন।’

টেক্সাসের অ্যাটর্নি জেনারেল কেন প্যাক্সটনের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, গোলাগুলিতে অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে বেশ কজন। নিহত ও আহতদের মধ্যে নারী ও শিশু রয়েছে।

সিএনএন’র কাছে দেওয়া এক বিবৃতিতে অ্যাটর্নি জেনারেল কেন প্যাক্সটন বলেন, ‘হতাহতের সংখ্যা পরিবর্তন হচ্ছে। নির্দিষ্ট করে কোনো সংখ্যা বলতে আমি ঘৃণা করি। কিন্তু আমি মনে করছি সংখ্যাটা আমাদের জন্য অবশ্যই বড়।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি যতদূর শুনেছি নিহতের সংখ্যা ১৫ থেকে ২০ এর মধ্যেই হবে।’

হামলার সময় সেখানে উপস্থিত একজন ব্যক্তি গুলিবর্ষণের বর্ণনা দিয়ে সিবিএস নিউজকে বলেন, 'সেখানে কর্মীরা ছিল, তারা ভেতরে এসে বলছিল যে, তারা কয়েকটি গুলির শব্দ শুনেছে। তখন মানুষজন সবাই কাভার নেয়ার জন্য দোকানটির ভেতর ছুটে আসছিল। আমি শান্ত থাকার চেষ্টা করছিলাম, কিন্তু ভেতরে ভেতরে আমি ভেঙ্গে পড়ছিলাম।'

এ ঘটনায় এল পাসোর মেয়র গ্রেগ অ্যাবোট বলেছেন, 'এরকম দুঃখজনক ঘটনা এখানে কখনো ঘটেনি, কখনো ভাবিনি এল পাসোতে এমনটা কখনো ঘটবে। এটা আমাদের দুঃখ দিয়েছে।'

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ‘ওই এলাকা থেকে যেসব খবর আসছে, তা খুব খারাপ, অনেকে মারা গেছেন।’

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0207 seconds.