• ০২ আগস্ট ২০১৯ ০০:৫৫:৪৯
  • ০২ আগস্ট ২০১৯ ০০:৫৫:৪৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়

শোকের মাসে কর্মচারীদের আন্দোলন বন্ধের দাবি

ছবি : সংগৃহীত

বেরোবি প্রতিনিধি :

শোকের মাসে সকল প্রকার আন্দোলন বন্ধ করে ক্যাম্পাসে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকাল ১২ টায় ১লা আগস্টের মৌন মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে এমন কথা বলেন তারা।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনীদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকরের দাবিতে মৌন মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। দুপুর ১২টায় মৌন মিছিল ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করার পর ১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় চলে এই সমাবেশ। উপাচার্য অধ্যাপক ডক্টর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ এর নেতৃত্বে সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা, কর্মকর্তা ও কিছু কর্মচারী অংশগ্রহণ করেন। 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল এর প্রভোস্ট তাবিউর রহমান এর সঞ্চালনায় আয়োজিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শিক্ষক-কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীরা শোকের মাস উপলক্ষে বিভিন্ন কথা বলেন। শোকের মাসকে শক্তিতে রুপান্তরিত করার আহবান জানান বক্তারা। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান সকল প্রকার বিশৃঙ্খলা তুলে ধরে তা বন্ধের দাবি করেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান নানা সংকটের কথা উল্লেখ করে বলেন, দেড় মাসের বেশি সময় ধরে  কর্মচারীদের লাগাতার আন্দোলনে স্থবির হয়ে পড়েছে একাডেমিক এবং প্রশাসনিক কার্যক্রম। এতে করে সেশনজটসহ নানান সমস্যার মুখোমুখী হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। বক্তব্যে এক শিক্ষার্থী বলেন, আন্দোলন যা করার তা তো করেছেন এখন অন্তত এই শোকের মাসে শিক্ষার্থীদের স্বার্থের কথা চিন্তা করে আন্দোলন বন্ধ করেন। অন্য এক শিক্ষাথী আন্দোলনরত কর্মচারীদের প্রতি হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, আপনারা যদি এই আন্দোলন বন্ধ না করেন তবে কিভাবে এই আন্দোলন বন্ধ করতে হয় তা শিক্ষার্থীদের জানা আছে। দয়া করে শিক্ষার্থীদেরকে মাঠে নামাবেন না। এসব আন্দোলন বন্ধ করে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য আহ্বান জানান শিক্ষার্থীরা।

সমাপনী বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ শোকাবহ এই আগস্টের ভয়াবহতার কথা স্মরণ করে বলেন, বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সাথে দেশের সকল জাতি আমরা আজ শোকাহত। আমরা বঙ্গবন্ধুকে হয়তো জীবন্ত অবস্থায় আর ফিরে পাবোনা কিন্তু তার যে আদর্শ তার যে স্মৃতি তা আমাদের পাথেয় হয়ে থাকবে। তার পরিবারের যারা শাহাদাৎ বরণ করেছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। আগস্ট মাসের পবিত্রতা বজায় রাখার জন্য সকলকে অনুরোধও করেন তিনি।

মৌন মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় অংশ নেন, কলা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. পরিমল চন্দ্র বর্মণ, শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হল এর প্রভোস্ট এবং জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনা, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. নাজমুল হক, সহযোগী অধ্যাপক ড. তুহিন ওয়াদুদ, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মোঃ সাইদুর রহমান, কর্মকর্তা হাফিজ আল আসাদ রুবেল প্রমুখ। 

উল্লেখ্য, তিন দফা দাবিতে গত ১৭ জুন থেকে কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের ব্যানারে প্রশাসনিক ভবনে তালা লাগিয়ে  আন্দোলন করছেন ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীরা। তবে প্রশাসনের দাবি গত ১১ জুলাই অনুষ্ঠিত ৬২তম সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দাবি পূরণ করা হলেও কর্মচারীরা উদ্দেশ্যমূলকভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

বাংলা/এএএ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0265 seconds.