• ফিচার ডেস্ক
  • ৩০ জুলাই ২০১৯ ১৪:০০:১০
  • ৩০ জুলাই ২০১৯ ১৪:০০:১০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

বিটিআরসির সতর্কবার্তা

১ আগস্ট থেকে অবৈধ-নকল ফোন ব্যবহার বন্ধ

ছবি : সংগৃহীত

মোবাইল ফোন কিনতে আইএমইআই যাচাই ও রশিদসহ ফোন কিনতে নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বলছে, সঠিক আইএমইআই ছাড়া মোবাইল ফোন বা অবৈধ হ্যান্ডসেটে ভবিষ্যতে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হবে। যার ফলে কেও যদি অবৈধ ভাবে ফোন কিনে তাহলে তার ফোন দেশে ব্যবহার করা যাবে না ।

অবৈধ-ক্লোন মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট কেনা সংক্রান্ত এক সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তিতে সোমবার বিটিআরসি জানায়, আগস্টের ১ তারিখ হতে নকল-অবৈধ আইএমইআই এর মোবাইল হ্যান্ডসেট নেটওয়ার্কে সংযুক্ত হলে পরবর্তীতে ন্যাশনাল ইক্যুপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্টারের (এনইআইআর) মাধ্যমে নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন করা হবে।

সম্প্রতি মোবাইল ইম্পোটার্স অ্যাসোশিয়েশনের পক্ষ থেকে বিটিআরসিতে স্থাপন করা হয়েছে আইএমইআই সংক্রান্ত একটি ডেটাবেজ। সেখানে মোবাইল ফোন অপারেটরদের আমদানী করা সকল ফোনের আইএমইআই সংক্রান্ত তথ্য রাখা আছে। একই সঙ্গে মোবাইল ফোন অপারেটদের নেটওয়ার্কে থাকা আইএমইআই-ও রাখা হচ্ছে সেখানে।

হ্যান্ডসেট অবৈধ বা নকল কিনা তা দেখেতে বিজ্ঞপ্তিতে সঠিক আইএমইআই যাচাই পদ্ধতি জানিয়ে দেয়া হয়। এতে বলা হয়, যে কেউ ম্যাসেজে KYD টাইপ করে স্পেস দিয়ে ১৫ ডিজিটের আইএমইআই নম্বর দিয়ে সেটি ১৬০০২ নম্বরে পাঠালে ফিরতি এসএমএসে আইএমইআই নম্বরটি বিটিআরসির ডেটাবেইজে সংরক্ষিত রয়েছে কিনা তা জানতে পারবেন। বিটিআরসির ডেটাবেইজে আইএমইআই নম্বর থাকলে বুঝতে হবে হ্যান্ডসেটটি বৈধ।

আইএমইআই নম্বর নতুন হ্যান্ডসেটের মোড়কেই দেখা যাবে। সেক্ষেত্রে *#/,. ইত্যাদি বিশেষ চিহ্ন বাদে শুধুমাত্র ১৫টি নম্বর নিতে হবে বিটিআরসিতে এসএমএসের জন্য।ব্যবহার করা হ্যান্ডসেটে *#০৬# ডায়াল করেই জেনে নেওয়া যায় মোবাইল ফোনে ব্যবহৃত ১৫ ডিজিটের আইএমইআই নম্বর।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

অবৈধ-নকল বন্ধ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0223 seconds.