• বিদেশ ডেস্ক
  • ২৬ জুলাই ২০১৯ ২২:৫৫:১৮
  • ২৬ জুলাই ২০১৯ ২২:৫৫:১৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

সিরিয়া যুদ্ধ: ১০ দিনে শতাধিক মানুষের মৃত্যুতেও নির্বিকার বিশ্ব

ছবি : সংগৃহীত

সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত সর্বশেষ অঞ্চলে সরকারী বাহিনীর বিমান হামলায় বিগত ১০ দিনে শতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।  সংস্থাটি জানিয়েছে, তিন মাসের মধ্যে বিদ্রোহীদের উচ্ছেদ করা এই অভিযানে ৪ লাখের বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

শুক্রবার জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের প্রধান মিশেল ব্যাশেলেত জানান, সিরিয়ার সরকারী বাহিনীর সাম্প্রতিক বিমান হামলায় ২৬ জন শিশুসহ ১০৩ জন বেসামরিক নাগরিক মারা গেছে।  স্কুল, হাসপাতাল, বাজার এবং বেকারিতে এই বিমান হামলা করা হয়।

তিনি উল্লেখ করেন, বাশার বাহিনীর হাতে নিহত মানুষের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়লেও বিশ্ব নেতারা এখনো নির্বিকার রয়েছেন।

এক বিবৃতিতে ব্যাশেলেত জানান, বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে এসব হামলার ঘটনা ঘটছে।  এগুলো এমনভাবে ঘটানো হচ্ছে যেন মনে হতে পারে তা নিতান্তই দুর্ঘটনা।  

প্রধান মিত্র রাশিয়ার সহায়তায় সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত সর্বশেষ এলাকায় গত এপ্রিল থেকে ব্যাপক অভিযান শুরু করেছেন প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ।  সে সময় তিনি জানিয়েছিলেন, অস্ত্রবিরতি চুক্তি লংঘন করায় বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে তিনি এই অভিযান চালাচ্ছেন।   

জাতিসংঘ কার্যালয়ের মুখপাত্র ডেভিড সোয়ানসন জানান, ওই অভিযানের পর থেকে এখন পর্যন্ত ৪ লাখের বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে।  

বাশার বাহিনীর অভিযান শুরুর আগে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত ইদলিবে প্রায় ত্রিশ লাখের মত মানুষের বাস ছিল।  প্রসঙ্গত, গত বছরের সেপ্টেম্বরে রাশিয়া এবং তুরস্কের সঙ্গে সিরিয়ার বিদ্রোহীদের করা চুক্তিতে ইদলিব এবং উত্তর-পশ্চিম সিরিয়াকে সহিংসতা মুক্ত এলাকা হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়।  তবে ওই চুক্তি খুব বেশিদিন কার্যকর ছিল না।  কারণ বিদ্রোহীরা পরিকল্পিত নিরাপদ অঞ্চল থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করার অঙ্গীকার থেকে সরে আসে।  এরপর থেকে ওই এলাকায় অভিযান শুরু করে সিরিয়ার সরকারী বাহিনী।  

বাংলা/এফকে

 

 

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0211 seconds.