• ২০ জুলাই ২০১৯ ১৬:০৫:৪৩
  • ২০ জুলাই ২০১৯ ১৬:০৫:৪৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

নারায়ণগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি, নিহত ১

ছবি : সংগৃহীত

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে অজ্ঞাত পরিচয়ে যুবক (২৫) গণপিটুনিতে নিহত হয়েছে। কয়েক ঘণ্টার ব্যাবধানে একই সন্দেহে শারমিন (২০) নামে আরেক নারীকে গণপিটুনিতে আহত করা হয়েছে। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ জুড়ে অভিভাবকদের মাঝে থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার (২০ জুলাই) সকাল সাড়ে ৮ টায় আলামিন নগরের আইডিয়াল ইসলামিক স্কুলের শিশু শ্রেণির ছাত্রী সাদিয়া (৬) স্কুলে যাওয়ার পথে অজ্ঞাত ওই যুবক কোলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে সে ‘বাঁচাও বাঁচাও’ চিৎকার শুরু করে। এলাকাবাসী ছেলে ধরা সন্দেহে অজ্ঞাত যুবককে গণপিটুনি দেয় এবং সাদিয়াকে উদ্ধার করে। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় যুবককে উদ্ধার করে শহরের খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালে পাঠায়। পরে সেখানকার জরুরী বিভাগের ডাক্তার যুবককে মৃত ঘোষণা করেন।

একই দিন বেলা সাড়ে ১১ টায় সিদ্ধিরগঞ্জের পাইনাদী শাপলা চত্ত্বর এলাকায় শারমিন নামে এক নারী ৫ বছরের এক শিশুকে খেলনা ও খাবার দিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে শিশুটি চিৎকার শুরু করে। এতে এলাকাবাসী ছেলে ধরা সন্দেহে ওই নারীকে গণপিটুনি দেয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই নারীকে আটক দেখিয়ে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করে। আটক শারিমন ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকার সালমান মিয়ার স্ত্রী।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম জানান, ছেলে ধরা সন্দেহে এলাকাবাসী এক নারীকে গণপিটুনি দিচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীকে আটক করা হয়।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপরেশন) জসিম উদ্দিন জানান, ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0229 seconds.