• ১৮ জুলাই ২০১৯ ২০:৪০:১০
  • ১৮ জুলাই ২০১৯ ২০:৪০:১০
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ক্যারিয়ার ছোট, জনপ্রিয়তা অনেক

ফাইল ছবি

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে এমন কয়েকজন তারকা আছেন যারা তাদের ছোট ক্যারিয়ারে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। অভিনয় ক্যারিয়ার ছোট হলেও তাদের জনপ্রিয়তা এখন পর্যন্ত আগের মতোই আছে। আজকের বাংলা ডট রিপোর্টের আয়োজন তাদের নিয়েই।    

সালমান শাহ

প্রকৃত নাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন, ১৯৭১ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর সিলেটে জন্ম। ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবির মাধ্যমে ১৯৯৩ সালে রূপালি পর্দায় তার আবির্ভাব হয়েছিল। মাত্র চার বছরের ক্যারিয়ারে ২৭টি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। তার অভিনীত প্রায় সবগুলো ছবিই ব্যবসাসফল ছিল। ছোট্ট এই ক্যারিয়ারে দর্শকের মনে আলাদাভাবে জায়গা করেছিলেন এই নায়ক। তার অভিনয়ের ভক্ত ছিল না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। আজও সালমান শাহকে ধারণ করেন চলচ্চিত্রপ্রেমীরা। ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রহস্যজনকভাবে নিহত হন সালমান শাহ। তার মৃত্যুতে তুঙ্গে থাকা চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি বড় একটা ধাক্কা খায়।

অরুণ সাহা

‘দীপু নাম্বার টু’ ছবিতে অভিনয় করে নাম ভূমিকায় অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি আলোচিত হন। ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯৬ সালে।তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ১৩ বছর। দীপু চরিত্রে অনবদ্য অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে শিশুশিল্পী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও অর্জন করেছিলেন অরুণ। যদিও তিনি এরপর আর অভিনয় করেননি। ঐ ছবিতে অভিনয়ের পর পড়ালেখা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

শাবনাজ-নাঈম জুটি

প্রয়াত পরিচালক এহতেশামের ‘চাঁদনী’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে একসঙ্গে পা রাখেন নাঈম ও শাবনাজ। মাত্র কয়েক বছরের ক্যারিয়ারে দর্শকমহলে ভালো গ্রহণযোগ্যতা পায় এই জুটি। তার প্রায় বিশটি ছবিতে জুটি হয়ে কাজ করেছেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ‘জিদ’, ‘লাভ’, ‘চোখে চোখে’, ‘অনুতপ্ত’, ‘বিষের বাঁশি’, ‘সোনিয়া’, ‘টাকার অহংকার’, ‘সাক্ষাৎ’ ও ‘ঘরে ঘরে যুদ্ধ’। নাঈম-শাবনাজ জুটি ১৯৯৪ সালের ৫ অক্টোবর বিবাহবন্ধনে আবন্ধ হন। তারপর সংসার জীবনে থিতু হওয়ার জন্য ক্যারিয়ারের ইতি টানেন। বর্তমানে এই জুটি সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত না থাকলেও নিজেদের সংসার নিয়ে ব্যস্ত আছেন।

জিনাত সানু স্বাগতা

ক্যারিয়ারে খুব বেশী চলচ্চিত্রে কাজ করা হয়নি স্বাগতার। তবে কয়েকটি চলচ্চিত্র দিয়ে দর্শকমহলে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। ২০০৭ সালে প্রয়াত নায়ক মান্নার বিপরীতে ‘শত্রু শত্রু খেলা’ চলচ্চিত্রে প্রথম নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেন স্বাগতা। স্বাগতার সর্বশেষ সিনেমা মুক্তি পায় ২০১০ সালে।  সেই সময় ছবিটি বাণিজ্যিক ভাবে দারুণ সাড়া ফেলে। এ ছাড়া ‘কোটি টাকার ফকির’, ‘অশান্ত মন’, ‘ডুবসাঁতার’ ও ‘ফিরে এসো বেহুলা’ সিনেমায়ও অভিনয় করেছেন স্বাগতা।

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0195 seconds.