• ০৮ জুলাই ২০১৯ ১৯:৫৩:৪৩
  • ০৮ জুলাই ২০১৯ ১৯:৫৩:৪৩
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

সংবাদ প্রকাশের জেরে উলিপুরে সাংবাদিক লাঞ্ছিত

ফাইল ছবি

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি :

বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাটের সংবাদ প্রকাশ করায় যুগান্তর পত্রিকার উলিপুর প্রতিনিধি উত্তম কুমার সেন গুপ্ত লক্ষনকে লাঞ্ছিত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা এবং টাকা লুটের ঘটনা ঘটেছে। ধরণীবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ মধুপুর সাতকুড়ারপাড় গ্রামের সুশীল চন্দ্র বর্মণের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী রবিবার দুপুরে দিকে এ ঘটনা ঘটায়।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় সাংবাদিক চন্দন সরকার ও ব্যবসায়ী মোস্তফা কামাল জানান, কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার ধরণীবাড়ী এলাকায় পুলিশের উপস্থিতিতে সুশীল চন্দ্র বর্মণের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী সুবল চন্দ্রের দখলে থাকা বাড়িঘর ভেঙে ও মালামাল লুট করে দখলে নেয় ২৫ শতক জমি। এ সংবাদ প্রকাশ হলে তোলপাড় শুরু হয় পুলিশ বিভাগে। বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে সন্ত্রাসীরা। সুশীল চন্দ্র বর্মণের নেতৃত্বে ৪৫/৫০ জনের একটি দল রবিবার দুপুরে প্রথমে থানায় হাজির হয়। পরে ফেরার পথে দুপুর আড়াইটার দিকে যুগান্তরের উলিপুর প্রতিনিধি উত্তম কুমার সেন গুপ্ত লক্ষণের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে (উলিপুর পৌর শহরের বাজারে অবস্থিত) হামলা চালায়। এক পর্যায়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ডয়ার থেকে ৫৫ হাজার টাকা লুট করে এবং লক্ষনকে লাঞ্ছিত করে।

তারা এক পর্যায়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সংলগ্ন সাংবাদিকের বাড়িতেও হামলার চেষ্টা করে। পার্শবর্তী ব্যবসায়ী ও সাংবাদিকরা সংগঠিত হয়ে এগিয়ে এসে প্রতিরোধ গড়ে তুললে সন্ত্রাসীরা পিছুহটে। বিষয়টি তাৎক্ষনিক ভাবে মোবাইল ফোনে উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম হোসেনকে অবহিত করা হয়। তিনি পুলিশ ফোর্স পাঠাতে চাইলেও শেষ পর্যন্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে আসেনি।

উত্তম কুমার সেন গুপ্ত লক্ষন জানান, হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসীরা আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়। পুলিশকে মোবাইলে অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনার দিন রাতে এ ব্যাপারে থানায় মামলা করা হয়েছে। মামলা নং-০৯, তারিখ-০৭/০৭/২০১৯ ইং 

উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম হোসেন স্বীকার করেন সুশীল চন্দ্র বর্মণের নেতৃত্বে একদল মানুষ তার সাথে দেখা করতে থানায় আসে। এর পর তারা সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে কিনা সেটা তার জানা নেই। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0219 seconds.