• ০৭ জুলাই ২০১৯ ২০:৫৩:২৮
  • ০৭ জুলাই ২০১৯ ২২:৫৮:২২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

ভুল চিকিৎসায় কোমায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী : ডাক্তার-নার্স জেলে

ছবি : সংগৃহীত

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি :

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী মুন্নিকে ভুল ইনজেকশন পুশ করার অভিযোগে ডাক্তার ও নার্সের জামিন আবেদন বাতিল করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রবিবার অভিযুক্ত ডাক্তার তপন কুমার মন্ডল ও নার্স কুহেলিকা গোপালগঞ্জ সদরের আমলী আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো. হুমায়ুন কবীরের আদালতে জামিন আবেদন করলে আদালত তাদের জামিন আবেদন বাতিল করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে অভিযুক্ত চিকিৎসক ও দুই নার্স হাইকোর্ট থেকে ৮ সপ্তাহের জন্য জামিন নেন এবং জামিনের সময় শেষ হওয়ায় ডাক্তার তপন ও নার্স কুহেলিকা আজ রবিবার নিম্ন আদালতে হাজির হলে তাদের জামিন বাতিল করা হয়। অন্যদিকে, অভিযুক্ত অন্য নার্স শাহনাজ পারভিন আদালতে হাজির হন নাই।

গত ২০ মে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পিত্তথলির পাথর অপারেশন করার আগে কর্তব্যরত নার্স গ্যাসের ইনজেকশনের পরিবর্তে ভুল করে অতিরিক্ত মাত্রায় অজ্ঞান হবার ইনজেকশন পুষ করেন। আর এই ভুল চিকিৎসায় অজ্ঞান হয়ে পড়েন মুন্নি এবং সেই থেকে অচেতন অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গোপালগঞ্জে ভুল ইনজেকশন পুশ করার কারণে দেড় মাস পার হয়ে গেলেও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) আইসিইউতে অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষের এই শিক্ষার্থী।

বাংলা/এএএ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0286 seconds.