• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৭ জুলাই ২০১৯ ১৭:৪৬:১৬
  • ০৭ জুলাই ২০১৯ ১৯:০৪:১৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

নতুন উদ্যোক্তার খোঁজে রবি, থাকছে বিশাল অর্থায়ন

ছবি : সংগৃহীত

দেশের ডিজিটাল উদ্যোক্তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় অর্থায়ন ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবে রবি। আর-ভেঞ্চারস ২.০ নামক পদক্ষেপের আওতায় উদ্যোক্তাদের জন্য আয়েজিত এক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে প্রত্যেক বিজয়ী উদ্যোক্তা বা উদ্যোক্তা দলকে ৮৪ লাখ টাকা পর্যন্ত অর্থায়ন করবে অপারেটরটি।

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য ব্যবসায়িক ধারণা জমা দেয়ার শেষ তারিখ আগামী ২১ জুলাই।
 
রবিবার (৭ জুলাই) রাজধানীর এক অভিজাত হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের এ ঘোষণা দেয় রবি। এ সময় কোম্পানির ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ, রবির চিফ ডিজিটাল সার্ভিসেস অফিসার শিহাব আহমেদ, চিফ হিউম্যান রিসোর্সেস অফিসার মো. ফয়সাল ইমতিয়াজ খান, চিফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার রনি তোহমে, চিফ টেকনোলজি অফিসার মেধাত আল-হুসেইনি এবং চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার সাহেদ আলম উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি ডিভিশনের স্টার্টআপ বাংলাদেশের ইনভেস্টমেন্ট অ্যাডভাইজর টিনা জাবিন। আর-ভেঞ্চারসের মাধ্যমে বেরিয়ে আসা প্রতিশ্রুতিশীল উদ্যোক্তাদের জন্য বিনিয়োগের নিশ্চয়তা নিয়ে তাদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতির কথা জানান তিনি।

এসময় রবির কর্মকর্তাদের মধ্য থেকে ডিজিটাল উদ্যোক্তা গড়ে তোলার জন্য আর-ভেঞ্চারসের প্রথম পর্বের আয়োজন সফল হয়েছে বলে জানান কোম্পানিটির চিফ ডিজিটাল সার্ভিসেস অফিসার শিহাব আহমেদ। সেই সাফল্যের প্রেক্ষিতে রবি কেন দেশের সবার জন্য ডিজিটাল উদ্যোক্তা হওয়ার পথ খুলে দেয়ার পরিকল্পনা হাতে নিল সে বিষয়টি ব্যাখ্যা করেন তিনি। 

জমাকৃত ধারণাগুলোর মধ্য থেকে রবির উচ্চপদস্থ কর্মকর্তদের সামনে বিস্তারিত তুলে ধরার জন্য প্রাথমিকভাবে বাছাই করা হবে ১৫০টি ধারণা। এই ধাপ থেকে ৫০টি ধারণা বাছাই করে সংশ্লিষ্ট উদ্যোক্তাদের জন্য 

প্রতিটি স্টার্ট-আপকে প্রতিষ্ঠিত করতে চার থেকে ছয় মাসের নিবিড় প্রশিক্ষণের আওতায় থাকতে হবে। এই পর্যায়ে বিজয়ীদের ধারণা বাস্তবায়নের জন্য কী কী পদক্ষেপ নিতে হবে সে দিক-নির্দেশনা দেয়া এবং প্রয়োজনীয় অর্থায়ন করা হবে। 

রবির ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‌‘ডিজিটাল বাংলাদেশ নতুন নতুন ডিজিটাল ব্যবসায়িক সম্ভবানার দরজা খুলে দিচ্ছে। ঠিক এই মুহুর্তে নতুন অথবা ইতোমধ্যে কার্যক্রম পরিচালনা করা কোন ধারণায় অর্থায়নের সুযোগ তৈরি করল আর-ভেঞ্চারস ২.০। দেশের ডিজিটাল ক্ষেত্রে আমাদের অবস্থান এবং আর-ভেঞ্চারসের প্রথম পর্বের সাফল্যের প্রেক্ষিতে আমাদের বিশ্বাস নতুন উদ্যোক্তাদের আমাদের তত্ত্বাবধানে রেখে তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নের সহযোগী হতে পারব।’

সংশ্লিষ্ট বিষয়

রবি উদ্যোক্তা

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0223 seconds.