• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৩ জুলাই ২০১৯ ১২:২২:২২
  • ০৩ জুলাই ২০১৯ ১৭:৪৯:২২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে হামলা: ৯ জনের ফাঁসি, ২৫ জনের যাবজ্জীবন

ছবি : সংগৃহীত

পাবনার ঈশ্বরদীতে শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে হামলার ঘটনায় ৯ জনের ফাঁসি ও ২৬ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ মামলায় আরো ১২ জনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে পাবনা জর্জ কোর্টে এ আদেশ দেন পাবনা দায়রা জজ-১ এর বিচারক মো. রোস্তম আলী।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৯ আসামি হলেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও ঈশ্বরদী পৌরসভার সাবেক মেয়র মোকলেছুর রহমান, পাবনা জেলা বিএনপির মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক একেএম আকতারুজ্জামান আকতার, ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টু, ঈশ্বরদী পৌর যুবদলের সভাপতি মোস্তফা নূরে আলম শ্যামল, স্থানীয় বিএনপি নেতা মাহবুবুল রহমান পলাশ, রেজাউল করিম ওরফে শাহিন, শামছুল আলম, আজিজুর রহমান ভিপি শাহীন ও শহীদুল ইসলাম অটল।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত এই ৯ জনের মধ্যে জাকারিয়া পিন্টু পলাতক, বাকিরা সবাই রায়ের সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

যাবজ্জীবনপ্রাপ্তরা হলেন- ইসলাম হোসেন জুয়েল, আলাউদ্দিন বিশ্বাস, আল আমিন, শিমু, আনিস শেখন, খোকন, নুরুল ইসলাম, আক্কেল আলী, সেলিম আহমেদ, মামুনুর রহমান, রবি, মামুন, তুহিন, এনাম, কল্লোল, কালা বাবু, লিটন, আবদুল্লাহ আল মামনু রিপন, লাইজু, আব্দুল জব্বার, আবুল কালাম, আব্দুল হাকিম টেনু, আলমগীর হোসেন, পায়েল ও পলাশ ।

এছাড়া আসামি তুহিন বিন ছিদ্দিক, দুলাল সরদার, ফজলুর রহমান, আব্দুল বারিক, আনোয়ার হোসেন জনি, রস্তম, মওলা, জামরুল, রাজু, বাবলু, বরকত, মুক্তা ও মুকুলকে দেওয়া হয়েছে ১০ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৪ সালে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর উত্তরাঞ্চলে দলীয় কর্মসূচিতে ট্রেনে করে খুলনা থেকে সৈয়দপুর যাচ্ছিলেন। ট্রেনটি পাবনার ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন স্টেশনে প্রবেশের সময় শেখ হাসিনার ট্রেনবহরকে লক্ষ্য করে স্থানীয় বিএনপির নেতা-কর্মীরা অতর্কিত গুলি, বোমাবর্ষণ ও হামলা চালান। এ সময় পুলিশ স্থানীয় বিএনপির নেতা-কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে গেলে তাঁরা পুলিশকে লক্ষ্য করেও বোমা নিক্ষেপ করেন। বোমার আঘাতে দায়িত্বে নিয়োজিত তৎকালীন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন ও পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্য আহত হন। এ ঘটনায় ঈশ্বরদী রেলওয়ে পুলিশ বাদী হয়ে ওই দিন বিএনপির নেতা-কর্মীদের নামে মামলা করেন। পরে মামলাটি সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়।

তদন্ত শেষে এই মামলায় ৫২ জনকে আসামি করে আদালতে চূড়ান্ত অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। দীর্ঘ ২৪ বছর ৯ মাস ৯ দিন পর বুধবার এ মামলার রায় হলো।

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0204 seconds.