• বাংলা ডেস্ক
  • ২৭ জুন ২০১৯ ১৩:৪৩:৩৪
  • ২৭ জুন ২০১৯ ১৪:১৯:২৫
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

ঢাকার প্রায় ২২ লাখ রিকশা চালকের ৯৪ শতাংশই অসুস্থ

ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা শহরে কত রিকশা আছে? কি পরিমান মানুষ এই পেশায় যুক্ত আছে? কেমনই বা তাদের স্বাস্থ্য এবং জীবন ব্যবস্থা? এসব তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়েই ভয়াবহ চিত্র উঠে এসেছে বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব লেবার রাইটস (বিলস) নামে একটি শ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠানের জরিপে।

বিলস এর জরিপের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, ঢাকা শহরে ১১ লাখ রিকশা চলাচল করছে। একেকটি রিকশা দুই শিফটে ভাড়া হয়। সে হিসেবে ২২ লাখ মানুষ রিকশা চালক হিসেবে কাজ করছে। যাদের ৯৪ শতাংশই শারীরিকভাবে অসুস্থ। আর এদের ভেতরে ৩০ শতাংশ রিকশা চালক জন্ডিস রোগে আক্রান্ত।

সংস্থাটির মতে ঢাকা শহরের ২৭ লাখ মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে এই পেশার সাথে জড়িত আছেন। জরিপে দেখা গেছে, শ্রমিকদের গড় আয় মাসে ২৪ হাজার টাকা থেকে সাড়ে ১৩ হাজার টাকা পর্যন্ত। আগের চেয়ে তাদের আয় বাড়লেও বাড়েনি জীবন যাত্রার মান। অধিকাংশ শ্রমিকই ভুগছেন নানা রকম রোগে। টাকা বাঁচাতে গিয়ে রিকশা চালকদের একটি বড় অংশ দুপুরে খাবার বিভিন্ন টং দোকানে রুটি, কেক ও চা খেয়ে সাড়েন।

ঢাকার ৯৪ শতাংশ রিকশা চালকই অসুস্থতায় ভোগেন। বিশেষ করে জ্বর-কাশি, ঠাণ্ডা, গায়ে ব্যথা, দুর্বলতা লেগেই থাকে। আর সুপেয় পানির অভাবে ৩০ শতাংশ রিকশা চালক জন্ডিসে আক্রান্ত হচ্ছেন। এছাড়াও রিকশার গঠন-আকৃতি রিকশা চালকদের জন্য আরাম দায়ক না।

সংস্থাটির গবেষণা পরিচালক কোহিনূর মাহমুদ বিবিসিকে বলেন, ‘যেই চালক লম্বা তাকে রিকশাটা নুয়ে চালাতে হয়। যিনি খাটো, তাদের দাঁড়িয়ে চালাতে হয়। আবার যারা শারীরিক প্রতিবন্ধী, তারাও রিকশা চালান। কিন্তু রিকশাটা তাদের অনুযায়ী আরামদায়ক করে হয় না। যার কারণে তারা স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েন। এই বিষয়গুলো সবসময় এড়িয়ে যাওয়া হয়।

এতে করে অনেক শ্রমিকের গায়ে ব্যথা, দুর্বলতা থেকে শুরু করে তাদের কাজ করার ক্ষমতা আগের চাইতে কমে যায় বলে গবেষণায় উঠে আসে।

তিনি বলেন, ‘সব মিলিয়ে এই রিকশা চালকরা বড় ধরণের স্বাস্থ্যঝুঁকিতে থাকেন।’

সংশ্লিষ্ট বিষয়

রিকশাচালক জন্ডিস

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0201 seconds.