• বিদেশ ডেস্ক
  • ২১ জুন ২০১৯ ১৭:০৫:২০
  • ২১ জুন ২০১৯ ১৭:১৪:৫১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ইরানে হামলার নির্দেশ বাতিল করলেন ট্রাম্প

প্রেসিডেন্ট ডোলান ট্রাম্প। ছবি : সংগৃহীত

মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ইরানে সামরিক হামলার নির্দেশ বাতিল করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোলান ট্রাম্প। বৃহস্পতিবার মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত হওয়ার শুক্রবার ভোরে  ইরানের বিরুদ্ধে হামলার নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। এমন খবর প্রকাশ করেছে মার্কিন গণমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস ও ইরান ভিত্তিক গণমাধ্যম পার্স টুডে।

দেশটির সামরিক এবং কূটনৈতিক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে প্রকাশ করা ওই খবরে বলা হয়, ‘ইরানের কয়েকটি রাডার এবং ক্ষেপণাস্ত্র অবস্থানের উপর হামলার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। তবে হামলার প্রাথমিক প্রস্তুতি নেয়ার সময় তা বাতিল করে দেয়া হয়।

এ বিষয়ে ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘বিমান এবং যুদ্ধজাহাজ হামলার জন্য প্রয়োজনীয় অবস্থান গ্রহণ করেছিল। কিন্তু কোনো ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়া হয় নি এবং সে সময়ে হামলা বন্ধের নির্দেশ পাওয়া যায়।’

তিনি আরো জানান, স্থানীয় সময় রাত প্রায় দু’টায় মার্কিন বাহিনীকে ঘুম থেকে তোলা হয়। ‘এক ঘণ্টার’ মধ্যে হামলা হবে বলে তাদের বলা হলেও শেষ পর্যন্ত তেমন কিছু ঘটে নি। মার্কিন পূর্বাঞ্চলীয় সময় অনুযায়ী, সকাল সাড়ে ৬টা এমনকি ৭টা পর্যন্ত হামলার পরিকল্পনা বহাল ছিল।

এ মার্কিন হামলার সম্ভাব্য লক্ষ্যবস্তু সম্পর্কে মার্কিন সাপ্তাহিক নিউজউইক’র খবরে বলা হয়, সাবেক সোভিয়েত আমলে নির্মিত এস-১২৫ নেভা/পিচোরা ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপকারী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা এ হামলার লক্ষ্যবস্তু হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছিলো।

এ দিকে দেশ দুটির মাঝে এমন উত্তেজনায় আমেরিকাকে সতর্ক করে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, ‘ইরানের বিরুদ্ধে মার্কিন সামরিক পদক্ষেপ মধ্যপ্রাচ্যের জন্য সবচেয়ে কম যে পরিণতি বয়ে আনবে তা হচ্ছে মহাবিপর্যয়। এর ফলে ব্যাপকভাবে যে সংঘাত ছড়িয়ে পড়বে তার পরিণতি কল্পনা করাও সম্ভব নয় বলে তিনি মন্তব্য করেন।’

উল্লেখ্য, চালকহীন মার্কিন বিমান আরকি-৪এ গ্লোবাল হক ফেলে দেয়ার জন্য ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি এ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। তবে ইরান বলেছে, এ কাজে নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি ৩য় খোরদাদ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা এবং রাডার ব্যবহার করা হয়েছে। এটি ইরানের তৈরি ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য রা’দ ক্ষেপণাস্ত্রের একটি সংস্করণ।

বাংলা/এনএস

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0207 seconds.