• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৮ জুন ২০১৯ ১৯:২৮:৪৮
  • ১৮ জুন ২০১৯ ১৯:২৮:৪৮
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

দ্বিতীয়বারের মত ‘স্পেস ইনোভেশন সামিট’

ছবি : সংগৃহীত

মহাকাশ বিজ্ঞান ও মহাকাশ গবেষনা যন্ত্রপাতি নিয়ে সেই সাথে রকেট টেকনলোজীর দক্ষতা উন্নয়নে, গ্রাউন্ড স্টেশন তৈরী এবং এ সম্পর্কিত বিভিন্ন আবিষ্কারকে উৎসাহিত করার উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম ও নাসা সাইন্টেফিক প্রবলেম সলভার বাংলাদেশ দেশে দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজন করতে যাচ্ছে ‘স্পেস ইনোভেশন সামিট-২০১৯’।

আগামী ১৯ ও ২০ জুলাই রাজধানীর (ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ) অনুষ্ঠিতব্য এই সামিটে দুই দিনে দুই টি ওয়ার্কশপ ও ৪ সেশনে মোট ১৬ টি টেকনিক্যাল সেমিনার আয়োজন করা হয়েছে। দেশে ও দেশের বাইরে থেকে প্রায় ২৪ জন বক্তা দুই দিনব্যাপী এই সামিটে বক্তব্য রাখবেন। এছাড়াও থাকছে মহাকাশে গবেষণা করার যন্ত্রপাতি নিয়ে একটি প্রদর্শনী।

উক্ত আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসাবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। এছাড়া ও বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর সাজ্জাদ হোসেন ও এমআইএসটি এরোনটিক্যাল ডিপার্টমেন্ট এর প্রফেসর ও হেড এয়ার কমোডর মো আব্দুস সালাম।

সামিটে প্রথম দিনে সারাদিনব্যাপী গ্রাউন্ড স্টেশন মেকিং উইথ স্যাটেলাইট ট্র্যাকিং এন্ড ইমেজ রিসিভিং নিয়ে ৩০ জনকে হাতেকলমে একটি ওয়ার্কশপ করানো হবে এবং দ্বিতীয় দিনেও থাকছে সিমুলেশন বেসড রকেট মেকিং এর ওপর হাতেকলমে দিনব্যাপী ওয়ার্কশপ।

এছারাও আয়োজনটিতে বিশেষ চমক হিসেবে থাকছে এপোলো-১১ চাঁদে ভ্রমনের ৫০ বছর পুর্তি উপলক্ষে ১ ঘন্টা ব্যাপী বিশেষ আয়োজন। স্পেস সায়েন্স ও স্যাটেলাইট নিয়ে ভবিষ্যৎ এ কাজ করতে আগ্রহী যে কেউ এই ‘স্পেস ইনোভেশন সামিট’ এ অংশগ্রহন করতে পারবে।

সামিটের আহবায়ক মাহমুদ মুসা বলেন, ‘তরুনদের মাঝে মহাকাশ বিজ্ঞানকে আরোও বেশি জনপ্রিয় করা এবং সায়েন্স, টেকনলোজী, ম্যাথমেটিক্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে বিষদভাবে তাদের কাছে তুলে ধরার জন্যে দুই দিনে প্রায় ১৮ টির মতো সেমিনার হবে আমরা আশা করছি এই সামিটের মাধ্যমে আমাদের তরুনরা মহাকাশ বিজ্ঞান সম্পর্কে আরোও বিস্তারিত জানতে পারবে এবং এই বিষয়ে তারা ভবিষৎ এ গবেষনায় ভুমিকা রাখতে পারবেন।’

আয়োজনটিতে ভেন্যু পার্টনার হিসেবে আছেন ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এবং সহযোগীতায় রয়েছেন স্পেস এন্ড রকেট সেন্টার বাংলাদেশ ও আইইউবি ইইই ডিপার্টমেন্ট।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

স্পেস ইনোভেশন সামিট

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0216 seconds.