• বিদেশ ডেস্ক
  • ১২ জুন ২০১৯ ২০:৪১:৪৪
  • ১২ জুন ২০১৯ ২০:৪১:৪৪
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

সাংবাদিকের মুখে পুলিশের মূত্রত্যাগ!

ছবি : ভিডিও থেকে নেয়া

সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে রেল পুলিশের হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন এক সাংবাদিক। ওই সাংবাদিকে নাম অমিত শর্মা। তিনি ভারতের নিউজ টুয়েন্টি ফোর টেলিভিশন চ্যানেলে কর্মরত আছেন। ইতোমধ্যে মারধরের ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, ওই সাংবাদিককে রেল পুলিশের একটি দল লাঞ্ছিত ও শারীরিক নির্যাতন করছে। একের পর এক মারা হচ্ছে কিল-ঘুষি আর লাথি।

সাংবাদিক অমিত জানান, শামলি জেলার একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনার সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়েই এমন হেনস্তার মুখে পড়েছেন তিনি। রেল পুলিশ কর্মীদের একটি দল তাকে সারারাত তালাবদ্ধ করে রেখে অত্যাচার চালায়।

তিনি বলেন, ‘ওরা সাদা পোশাকে ছিল। আমার ক্যামেরাটিতে আঘাত করে একজন এবং তা নিচে পড়ে যায়। আমি যখন ক্যামেরা তুলতে যাই, ওরা আমাকে মারে। আমার পোশাক খুলে নেওয়া হয় এবং মুখে প্রস্রাব করে দেয়।’

অভিযোগ, ঘটনাস্থলে উপস্থিত রেলের সরকারি পুলিশ কর্মকর্তা অমিত শর্মাকে নির্যাতন ও মারধর করেন। তার ক্যামেরা ও ফোন ছিনিয়ে নেন তারা।

এনডিটিভির ভবরে বলা হয়, খবর পেয়েই স্থানীয় আরো কয়েকজন সাংবাদিক পুলিশ স্টেশনে ছুটে যান। রেল পুলিশ কর্মকর্তাদের অমিতকে মারধর করার ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে আপলোড করে দেন।

সাংবাদিকরা পুলিশ সদর দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গেও যোগাযোগ করেন। স্থানীয় থানায় অন্য সাংবাদিকদের বিক্ষোভের পর বুধবার সকালে ছেড়ে দেওয়া হয় অমিত শর্মাকে।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশ ভিডিওটি দেখে জানিয়েছে, রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ও একজন কনস্টেবলকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ভারত সাংবাদিক পুলিশ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0324 seconds.