• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৬ জুন ২০১৯ ১০:১৪:৪৬
  • ০৬ জুন ২০১৯ ১০:১৪:৪৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

সেমাই খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে নাতনিকে ধর্ষণ

প্রতীকি ছবি

ঈদের সেমাই খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে ডেকে এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ৫০ বছর বয়সী এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। বুধবার বিকেলে নওগাঁর ধামইরহাটে উপজেলার উত্তর দূর্গাপুরে এ ঘটনা ঘটে। ওই শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় জয়পুরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীযরা ওই ঘটনায় অভিযুক্ত আব্দুস ছালামকে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে। আব্দুস ছালাম ওই গ্রামের মৃত আয়েজ উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঈদের নামাজ আদায় করে আব্দুস ছালাম তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া প্রতিবেশী এক নাতনিকে সেমাই খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে বাড়ি নিয়ে যায়। এরপর ঘরের মধ্যে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের পর ভয় দেখিয়ে ওই শিশুটিকে বাড়ি পাঠান আব্দুস ছালাম। শিশুটি বাড়ি আসার পর ভয়ে বসে থাকে। এক পর্যায়ে পরিবারের লোকজন রক্তক্ষরণের বিষয়টি দেখতে পেয়ে শিশুটিকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ঘটনাটি খুলে বলে।

ঘটনাটি জানতে পেরে স্থানীয়রা আব্দুস ছালামকে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করে। শিশুটিকে উদ্ধার করে দ্রুত ধামইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে দ্রুত জয়পুরহাট সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাকিরুল ইসলাম বলেন, এই ঘটনায় থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামি আব্দুস ছালামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বাংলা/এআর

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ধর্ষণ শিশু ঈদ

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0296 seconds.