• নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৭ মে ২০১৯ ২০:৩২:২২
  • ২৭ মে ২০১৯ ২০:৩২:২২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

সীমান্ত স্কয়ারের ২৪ খাবার দোকান বন্ধ রাখার নির্দেশ

ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর সীমান্ত স্কয়ারের ফুডকোর্টে আজ অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের দেখে দোকানের সাটার নামিয়ে পালিয়ে যান ২৪টি দোকানের মালিক ও কর্মচারীরা। পরে দোকানগুলো বন্ধের নির্দেশ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

এছাড়া ৫টি দোকান মালিককে ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে র‍্যাব সদস্যদের নিয়ে সীমান্ত স্কয়ারে অভিযান চালান সারওয়ার আলম।

অভিযানে বিল্লা স্পাইসি ফুড, মায়সা ইতালিয়ান ফুড, ফোরমোসা কিউ কিউ, ইট ওয়ে এবং ইট প্লেট নামের ৫টি দোকান খোলা ছিল। বাকি ২৫টি দোকান বন্ধ পায় র‌্যাব। খোলা থাকা পাঁচ দোকানে অভিযানে চালিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট দেখতে পান সেখানে ব্যবহৃত স্পাইসি চিকেনে শিল্প কারখানায় ব্যবহৃত রঙ ব্যবহার করা হচ্ছে। এছাড়া প্রতিটি দোকানের রান্নাঘরে তেলাপোকা ও খাবার তৈরির জায়গা অস্বাস্থ্যকর ছিল।

অভিযানে বিল্লা স্পাইসি ফুডকে ৪০ হাজার, মায়সা ইতালিয়ান ফুডকে ৫০ হাজার, ফোরমোসা কিউ কিউকে ২৫ হাজার, ইট ওয়েকে ৫০ হাজার এবং ইট প্লেটকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযান শেষে ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম ফুডকোর্টে দাঁড়িয়ে ঘোষণা দেন, দোকানের সাটার বন্ধ করে পালিয়ে যাওয়া দোকানগুলোতে পরবর্তী অভিযান চালানোর আগে খোলা যাবে না। এ কথা শুনে কফি লাইম নামে এক দোকানের মালিক ম্যাজিস্ট্রেটকে তার দোকানে নিয়ে যান। পরে দোকানটি পরিচ্ছন্ন থাকায় তাকে আর কোনো জরিমানা করা হয়নি।

তবে সাটার বন্ধ করে পালিয়ে যাওয়া বাকি ২৪টি দোকান বন্ধ রাখার বিষয়টি সীমান্ত স্কয়ার কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়।

অভিযান সম্পর্কে ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, ‘আমরা দোকানগুলো বন্ধ রাখতে সীমান্ত স্কয়ার কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। সীমান্ত স্কয়ার কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। পরবর্তী অভিযানের আগে দোকানগুলো খুলতে দেবে না বলে আমাকে জানিয়েছে।’

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0228 seconds.