• ২৫ মে ২০১৯ ১৪:২৯:৫১
  • ২৫ মে ২০১৯ ১৫:০৬:১১
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

নির্বাচনী যজ্ঞ

প্রতীকী ছবি

ঢাক, ঢোল, বাদ্য, সানাই প্রস্তুত; আজ যজ্ঞ হবে। প্রস্তুত পুরোহিত- গলার দু-ধারে তার ঝুলে আছে নামাবলী। কপালে তিলক। মুদিত নয়ন জুড়ে যজ্ঞ শেষ করার প্রাক -প্রস্ততি। ধুপ-ধুনোর সুগন্ধ, বাহারি নৈবদ্য আর পুষ্প পত্রাঞ্জলি। সেই সাথে লগ্নমেপে চলে--গদগদ চিত্তে সঞ্জীবনী মন্ত্র পাঠ। পুরোহিতের গলা যত চড়তে থাকে; তার চেয়েও পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকে--অবুঝ ভক্তবৃন্দের মুর্হমুর্হ জয়ধ্বনি। শঙ্খসুরে বেজে উঠে স্বর্গীয় দ্যোতনা।

অবশেষে পুরোহিত আহুতি দেন যজ্ঞে। ভক্তবৃন্দ হৈ হৈ করে ওঠে। যজ্ঞ শেষ হয়ে এলে সকলের মঙ্গলকামনায় দেবতার চরণে বলি হয়--অবুঝ প্রাণিবিশেষ। তাতে জনতার হৃদয়ে আসে অপার শান্তি। চোখে আনে জল!

ভেবেছো কী কখনও তুমি ! কীভাবে যেনো স্বর্গীয় যজ্ঞের এ আবহ টা আজ; পৌঁছে গেছে তোমাদের কাছে। আমি দেখি তোমরাও মেতে উঠেছে এক-- কদাকার খেলায়। ক্ষমতার দম্ভ, অর্থ আর দুর্নীতির সখ্য, বানোয়াট মিছিলের সারি, উন্নয়নের উন্মাদনা, উগ্রবাদ, সাম্প্রদায়িকতা আর বর্ণবাদ-- তোমাদের-ই হর্ষধ্বনিতে পেয়ে যায় নব জীবন। ভুলিয়ে দেয় অতীতের গ্লানিময় সময়। তোমরাও ক্ষণিকের পুরোহিত হয়ে নেমে পড়ো-- সেই যজ্ঞের বেদীতে। নির্বাচনী যজ্ঞের ছেলেখেলায়।

সময় বড্ড নির্মম! শুনতে কি পাও? নির্বাচনী যজ্ঞ শেষে শিশুর সশব্দ কান্নার মতো কেঁদে ওঠে গণতন্ত্র--তোমাদের চেতনার প্রহ্লাদ! আর তারই নামে বলি হয় লাখে লাখে--অবুঝ ইনসান! দেখে মনে হয়; সকলেই হয়ে উঠেছে যেন --যজ্ঞের প্রাণি সবিশেষ।

লেখক : কবি, কলাম লেখক ও চিকিৎসক।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

নির্বাচন ডা. পলাশ বসু

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0183 seconds.