• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৪ মে ২০১৯ ২০:৪৫:৫৯
  • ০৪ মে ২০১৯ ২০:৪৫:৫৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

প্রার্থনাকারীদের উপর হামলা করা জিহাদ নয় সন্ত্রাসবাদ

ছবি : সংগৃহীত

 যে কোন উপাসনালয়ে প্রার্থনা করা নিরীহ মানুষের উপর হামলা করার ঘটনাকে সন্ত্রাসবাদ এবং নরহত্যা বলে উল্লেখ করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান।  এবং এই হামলা কোনভাবেই জিহাদ নয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার তুরস্কের সবচেয়ে বড় মসজিদ গ্রেট ছামলুজার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এই মন্তব্য করেন।  ইস্তাম্বুলের উসকুদার জেলায় এই মসজিদটির অবস্থান।

জুমার নামাজ আদায় করার উদ্দেশ্যে আগত মুসল্লিদের লক্ষ্য করে এরদোয়ান বলেন, ‘ জিহাদের নাম করে কেউ প্রার্থনার জন্য নির্দিষ্ট কোন স্থানে হামলা করতে পারে না। নিরপরাধ মানুষকে হত্যা করা জিহাদ নয় বরং সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, বর্বরতা এবং নরহত্যা। ’

তুর্কি প্রেসিডেন্ট জানান, এই মসজিদটি ইস্তাম্বুলের সৌন্দর্য আরো বাড়িয়ে দেবে।  তুরস্কের প্রখ্যাত স্থপতি সিনান এর স্থাপত্য কর্মের অনুসরণেই এই মসজিদটি নির্মাণ করা হয়েছে।  প্রসঙ্গত, সিনান অটোমান সাম্রাজ্যের নামকরা একজন স্থপতি ছিলেন।    

উল্লেখ্য, গত মার্চ ও এপ্রিল মাসে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে এবং শ্রীলংকার তিনটি গির্জায় সন্ত্রাসী হাময়ায় বহু নিরপরাধ মানুষ হতাহত হন।  এরদোয়ান মর্মান্তিক ওই ঘটনা দুটি স্মরণ করে মুসল্লিদের এই ব্যাপারে সতর্ক করে দেন।

তিনি বলেন, ‘শ্রীলংকার সন্ত্রাসী হামলা এবং নিউজিল্যান্ডের হত্যাকাণ্ডের ঘটনা আবারও হুমকির ব্যাপকতা উন্মোচিত করেছে।  সন্ত্রাসবাদের মুখে এখন কিন্তু শব্দটি উচ্চারণ করার বিলাসিতা আর কেউ করতে পারছেন না। ’    

তুর্কি প্রেসিডেন্ট জানান, এতসব ঘটনার পরে কোন রাষ্ট্রই এখন ভালো সন্ত্রাসী এবং মন্দ সন্ত্রাসীর মধ্যে পার্থক্য করতে পারে না।  সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর বিরুদ্ধে আরো সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং  স্পষ্ট নীতিমালা তৈরি করা উচিত।   

এরদোয়ান বলেন, মসজিদ এবং গির্জায় হামলাকারী অপরাধীদের মনোভাব একই রকমের।  তুরস্ক নব্য নাৎসি সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে অব্যাহত লড়াই চালিয়ে যাবে বলে অঙ্গীকার করেন তিনি।  এই ইস্যুতে কিছু পশ্চিমা দেশের দ্বিমুখী মনোভাবের সমালোচনাও করেন তিনি।  

বাংলা/এফকে

বিজ্ঞাপন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0215 seconds.