• ফিচার ডেস্ক
  • ২৬ জানুয়ারি ২০১৯ ২০:৩৯:২৬
  • ২৬ জানুয়ারি ২০১৯ ২০:৩৯:২৬
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

এই বালকের কিডনির অবস্থান পায়ে

দশ বছর বয়সী বালক হামিশ রবিনসনের কিডনির অবস্থান তার পায়ে। ছবি : ডেইলি মেইল

সাধারনত কিডনির অবস্থান পেটের ভেতরেই হয়। কিন্তু ব্রিটেনের দশ বছর বয়সী বালক হামিশ রবিনসনের কিডনির অবস্থান তার পায়ে। অদ্ভুত মনে হলেও বাস্তবে এমনই ঘটেছে বিরল এক রোগের কারণে। জিনগত সমস্যাই এই রোগের কারণ বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

চিকিৎসকরা জানান, হামিশই হয়তো একমাত্র মানুষ যার দেহে একটি নির্দিষ্ট ক্রোমোজোম নেই। ‘সেভেন পি টু টু’ (7p22.1) নামের ক্রোমোজোমের অভাবে সৃষ্ট এই বিরল রোগটিকে তারা অভিহিত করেছেন ‘হামিশ সিনড্রোম’ নামে। এই রোগে শরীরের কোনও গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ যথাস্থানে না থেকে অন্য জায়গায় অবস্থান করতে পারে।

হামিশের ক্ষেত্রে তার শরীরে কিডনির অবস্থান ডান পাশের থাইয়ের উপরের দিকে। এর আগে কখনও এমন রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়নি বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, হামিশ নির্দিষ্ট সময়ের প্রায় ৬ সপ্তাহ আগেই ভূমিষ্ঠ হয়েছিল।জন্মের সময় তার ওজন ছিল মাত্র ৯০০ গ্রাম।

শিশুটির মা জানান, কথা বলতেও তার সমস্যা হয় হামিশের। ১৭ মাস বয়সে প্রথমবারের মতো ‘মাম্মি’ শব্দটি উচ্চারণ করেছিল সে। এরপর তার মুখ থেকে দ্বিতীয় শব্দ শুনতে আরও অন্তত ছয় বছর অপেক্ষা করতে হয়েছিল।

তবে শারীরিক প্রতিবন্ধকতা দমাতে পারেনি হামিশকে। নিয়মিত স্কুলে যায় সে। শিখছে কারাতেও।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

কিডনি

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0230 seconds.