• ফিচার ডেস্ক
  • ০৬ জানুয়ারি ২০১৯ ১৪:৩৮:৩৭
  • ০৬ জানুয়ারি ২০১৯ ১৪:৩৮:৩৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন
বিজ্ঞাপন

জেনে নিন ফুসফুস নিকোটিনের বিষমুক্ত করার উপায়

.

ধুমপান করেন? আপনি কি জানেন ধুমপানের সময় আপনার শরীর ৯০ শতাংশ নিকোটিন শুষে নেয়? এর সেই নিকোটিন আপনার ফুসফুসে জমতে শুরু করে। শুধু কি তাই? ধুমপান ছেড়ে দেওয়ার পরেও দীর্ঘদিন শরীরে নিকোটিন থেকে যায়।

তাহলে উপায়? হ্যা, উপায় আছে। তাই এই লেখাটি ধুমপায়ী-অধুমপায়ী সবার জন্যই।

ধুমপায়ী না হলে আপনার জন্য পরিচিত যারা ধুমপান করেন তাদের নিচের পরামর্শ দেবেন। আর যারা ধুমপান ছেড়ে দিয়েছেন, তারাও জেনে নিন শরীর থেকে নিকোটিন দূর করার উপায়।

৪০০ গ্রাম কুচানো পেঁয়াজ, এক টুকরা আদা এবং ২ চামচ হলুদ গুঁড়া এক লিটার পানিতে ভালো করে ফুটিয়ে নিন কয়েক মিনিট। এভাবে তৈরি করা হলুদ চা দিনে দুই বার খান।

হলুদে আছে সারকিউমিন যা শরীর থেকে বিষাক্ত উপাদান বের কর দিতে সাহায্য করে। আদা বমি বমি ভাব দূর করে। এই চা পান করার পর এক হাত বুকে ও অপর হাত পেটের উপর রেখে উপর থেকে নিচের দিকে হাত বুলিয়ে নিন কিছুক্ষণ। ৩ থেকে ১০ বার এমন করুন।

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে এমন খাবার বেশি করে খান। যেমন যেকোন লেবুজাতীয় ফল। এটি আপনার শরীরে মেটাবলিজমের হার বাড়াবে এবং শরীরের ক্ষত সারাবে।

এর পর ক্যাফিন, দুগ্ধজাত খাবার ও মিষ্টান্ন খাওয়া বন্ধ করুন। এগুলি ফুসফুসের শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যবস্থাকে জটিল করে।

এ ছাড়া পানি পান করুন প্রচুর পরিমাণে। এটি আপনার লিভার ও কিডনির বর্জ্য দূর করতে সাহায্য করবে।প্রতিদিন কিছুক্ষণ শরীরচর্চা করুন। এতে  শরীরে রক্ত চলাচল বাড়বে এবং ঘামের মাধ্যমে বিষ দূর হতে থাকবে।

জেনে রাখবেন, আপনি যদি সপ্তাহে একদিন ধুমপান করেন, তবে তার নিকোটিন শরীর থেকে দূর হয় ২-৩ দিনে। আর যদি আপনি প্রতিদিন ধুমপান করেন, তাহলে ধুমপান ছাড়ার পরও নিকোটিন এক বছর সময় নেয় শরীর থেকে বের হতে।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

হলুদ চা নিকোটিন

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0293 seconds.