• ফিচার ডেস্ক
  • ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ১৯:৫২:১৭
  • ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ১৯:৫২:১৭
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

খোঁপায় দোলে বুনো ফুলের কুঁড়ি

ছবি: সংগৃহীত

মোর কথা যদি মনে পড়ে সখি, যতনে বাঁধিও চুল, আলসে হেলিয়া খোপায় বাঁধিও মাঠের কলমী ফুল। বসন্ত মানেই শত রঙের ফুলের বাহার। ফুল ছাড়া কি পহেলা ফাল্গুনের সাজ পরিপূর্ণ হয়? পহেলা ফাল্গুনে চুলের সাজ মানেই চুলে থাকবে নানা রঙের ফুলের বাহার। তাই আমরা ফাল্গুনের চুলের সাজে কিছু চুল বাঁধার নিয়ম ও ছবি দিয়ে চুলের সাজ সম্পর্কে জানাচ্ছি। আপনি আপনার ফাল্গুনের জন্য যেকোনো একটি চুলের সাজ পছন্দ করতে পারেন।

১. প্রথমেই সব চুল ভালোভাবে আঁচড়ে নিন। সামনে যদি ব্যাংস বা লেয়ার স্টাইলে চুল কাটা থাকে তাহলে সেই চুল গুলো বাদ দিয়ে মাথার মাঝখানের চুল গুলোর কিছু নিয়ে বেণি করা শুরু করুন।

একদম শেষ পর্যন্ত বেণি করা শেষে একটি চিকোন ব্যান্ড দিয়ে চুল আটকে নিন। বেণিটা আরেকটু আকর্ষণীয় করে তুলতে বেণির প্রথম থেকে শুরু করে মাঝখান পর্যন্ত দুই দিক থেকে হালকা টান দিন। এতে বেণিতে ফোলাভাব আসবে।

বাঁধা চুলগুলো এবার খোপা করতে হবে। তার আগে চিরুনি দিয়ে চুল হালকাভাবে টিজ করে নিন যাতে খোপা করার পর চুলগুলো ফুলে থাকে। আপনার চুল যদি ছোট হয়ে থাকে তবে চুল একবার মোড়ালেই হবে। সবশেষে ভালোভাবে ক্লিপ দিয়ে চুলগুলো আটকে নিবেন। আর যদি বড় চুল হয় তাহলে প্রথম যে খোপা বাঁধার স্টাইলটি দেখান হয়েছে সেটি অনুসরণ করুন।

২. খোঁপা করার আগে কিছু চুল আলাদা করে রেখে খোঁপা করুন। এরপর আলাদা করে রাখা চুলগুলো দিয়ে বেণি করে খোঁপার চারপাশে সুন্দর করে জড়িয়ে ক্লিপ দিয়ে ভালো করে আটকে নিন। খোঁপার এক পাশে পরে নিন দুটো হলুদ জিনিয়া। বেণির ভাঁজে ভাঁজে গুঁজে দিতে পারেন ছোট ছোট হলুদ বা সাদা ফুল৷

৩. যারা চুলে বেণি করার কথা ভাবছেন, তাঁরাও বেণিতে ফুলের ব্যবহার করতে পারেন। খেজুর বেণি, ফ্রেঞ্চ বেণি, টুইস্ট বেণি, মাথার বিভিন্ন জায়গায় টুইস্ট করে এলো বেণিও খুবই জনপ্রিয় চুলের সাজে। এ রকম বেণি করে সামনের চুলটা কিছুটা কোঁকড়া করে নিয়ে এলোমেলো করে ছেড়ে রাখতে পারেন।

বেণির গোড়ায় আটকে নিতে পারেন পছন্দের কোনো বড় আকারের একটি ফুল। আর বেণিতে পেঁচিয়ে নিতে পারেন কাঠবেলীর লহর। লম্বা বেণির ভাঁজে ভাঁজে ছোট ছোট ফুল গেঁথে নিলে চমৎকার দেখাবে।

৪. পিঠজুড়ে খোলা চুলেও হতে পারে বসন্তের সাজ। এ ক্ষেত্রে সামনের চুলগুলো রোল করে পেঁচিয়ে একটু ফুলিয়ে কানের পাশে নিয়ে ক্লিপে ভালো করে আটকে নিন।

এবার মাথার ওপরের চুলগুলো একটু কম্ব করে ছড়িয়ে রাখুন পিঠজুড়ে। কানের পাশে আটকে নিন কাঁঠালিচাঁপা, জারবেরা না হয় দুটো অলকানন্দা ফুল। 

৫. প্রথমেই একটু উঁচু করে একটি পনি টেইল বাঁধুন। এবার স্পঞ্জের একটি মোটা ব্যান্ড নিয়ে বাঁধা চুলের মধ্যে ঢুকান। এবার স্পঞ্জ ব্যান্ডটি চুলের শেষ প্রান্তের দিকে নিয়ে চুলের আগা ব্যান্ডটির ভিতর দিয়ে ঢুকান এবং ব্যান্ডটি ধরে ধীরে ধীরে চুলের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত মোড়াতে থাকুন। এই জায়গাটা খুব সতর্কতার সঙ্গে করতে হবে। প্রথমবারেই হবে না, ধৈর্য নিয়ে আগে কয়েকবার চেষ্টা করুন।

মোড়ানো শেষ হলে খোপার চারপাশে সমানভাবে চুল গুলো সাজিয়ে নিন। এবার খোঁপার নীচে কতগুলো হেয়ার ক্লিপ দিয়ে চুলের সঙ্গে ভালোভাবে আটকে নিন যাতে খোপাটা শক্তভাবে আটকে থাকে। এবার খোঁপার পাশে পছন্দের ফুল লাগিয়ে নিন।

৬. চুল ভালো মতো আঁচড়ে নিয়ে পেছনে উঁচু করে দুইটি পনি টেইল বাঁধুন। এবার চুলে হেয়ার ক্রিম লাগিয়ে এরপর প্রত্যেকটি পনি টেইল দুই অংশে ভাগ করুন এবং দড়ির মতো করে প্যাঁচাতে থাকুন। একদম শেষে একটি চিকন হেয়ার ব্যান্ড লাগিয়ে নিন।

এবার প্যাঁচানো চুলগুলো হাত দিয়ে যতটা সম্ভব হালকা করুন, এতে খোঁপা ফোলা এবং সুন্দর দেখাবে। ডান দিকের প্যাঁচানো বেণিটা উপরের দিক দিয়ে এনে পেচিয়ে শেষের অংশে একটি হেয়ার ক্লিপ লাগিয়ে দিন যাতে খোলার সম্ভাবনা না থাকে।

আবার বাম দিকের প্যাঁচানো বেণিটা ঘুরিয়ে মাঝখানে ক্লিপ দিয়ে এমন ভাবে আটকান যাতে পেছনের সিঁথি দেখা না যায়। খোপাটা ভালো মতো সেট করে নীচ দিয়ে হেয়ার ক্লিপ লাগান এবং খোঁপার উপর হেয়ার স্প্রে করুন। আপনার পছন্দের যেকোনো ফুল খোঁপার পাশে লাগিয়ে নিলে সৌন্দর্য বেড়ে যাবে অনেকখানি।

বাংলা/এমএ/এমএইচ

সংশ্লিষ্ট বিষয়

ফাল্গুন চুলের সাজ খোপা

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0204 seconds.