• বিদেশ ডেস্ক
  • ০৫ জানুয়ারি ২০১৮ ১২:১১:০৯
  • ০৫ জানুয়ারি ২০১৮ ১২:১১:০৯
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

পাকিস্তানে নিরাপত্তা সহায়তা বন্ধ করল যুক্তরাষ্ট্র

সন্ত্রাস বিরোধী ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় পাকিস্তানকে নিরাপত্তা সহায়তা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। নতুন বছরের প্রথম দিনেই এমন আভাস এসেছিল যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একটি টুইটবার্তায়। এবার এলো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা।

পাকিস্তানকে জঙ্গিদের স্বর্গরাজ্য বলে টুইটে ট্রাম্পের কটাক্ষের পর যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরে পক্ষ থেকে সহায়তা বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে বলে বিবিসির খবরে বলা হয়েছে।

পাকিস্তানে তৎপর জঙ্গিগোষ্ঠী আফগান তালেবান এবং হাক্কানি মিশনের তৎপরতা বন্ধে দেশটির ব্যর্থতার কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

পররাষ্ট্র দপ্তরের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, জঙ্গি গ্রুপ হাক্কানি নেটওয়ার্ক এবং আফগান তালেবান গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে পাকিস্তানের ব্যবস্থা না নেয়া পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে।

পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র হেদার নরেট বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প স্পষ্ট করেছেন যে যারা সন্ত্রাসে মদদ দেয় তাদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের কোনও সহযোগিতামূলক সম্পর্ক থাকতে পারে না।

তিনি বলেন, পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের নিয়মিত যোগাযোগ থাকলও তালেবান ও হাকানি নেটওয়ার্ক সেখানে ঘাঁটি গড়েছে। তারা আফগানিস্তানে অস্থিতিশীলতা তৈরি করতে চায় এবং মার্কিন সেনাদের ওপর হামলা চালাতে চায়।

নরেট বলেছেন, ‘আজ নিশ্চিত করে বলতে চাই যে আমরা পাকিস্তানের নিরাপত্তা সহায়তা বন্ধ করছি।’

তিনি বলেন, ‘যতদিন পর্যন্ত না দেশটির সরকার তাদের দেশে তৎপর আফগান তালেবান গোষ্ঠী ও হাক্কানি গ্রুপের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা না নেবে, ততদিন পাকিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা সহায়তা বন্ধ রাখা হবে।’

যুক্তরাষ্ট্রের এমন সিদ্ধান্তে মিত্র হিসেবে পরিচিত পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে একটি বড় আঘাত। তবে আফগানিস্তান ও ভারত প্রশংসা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের এমন পদক্ষেপের। কেবল চীন এ বিষয়ে পাকিস্তানের পক্ষে রয়েছে।

এর আগে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতারণার আশ্রয়, জঙ্গি দমনে ব্যর্থতা ও তালেবানদের আশ্রয় দেয়ার অভিযোগে সাহায্য বন্ধ করার হুমকি দিয়ে টুইট করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

টুইটে তিনি লিখেছিলেন- যুক্তরাষ্ট্র ১৫ বছর ধরে বোকার মতো পাকিস্তানে ৩৩ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি অর্থ সাহায্য দিয়ে এসেছে। যার বিনিময়ে তারা কিছুই পায়নি।

সংশ্লিষ্ট বিষয়

পাকিস্তান যুক্তরাষ্ট্র

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0433 seconds.