• ০৯ নভেম্বর ২০১৭ ০৯:৪১:১২
  • ০৯ নভেম্বর ২০১৭ ০৯:৪১:১২
অন্যকে জানাতে পারেন: Facebook Twitter Google+ LinkedIn Save to Facebook প্রিন্ট করুন

রাবিতে ‘বিতর্কিত’ প্রশ্নে নেয়া ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষে চারুকলা অনুষদের (আইইউনিট) ‘বিতর্কিত’ ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে।

বুধবার রাতে চারুকলা অনুষদের ডিন ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। 

গত ২৫ অক্টোবর অনুষ্ঠিত এ পরীক্ষায় চারুকলার অধীনে ১২০ আসনের বিপরীতে চার হাজার ৩২ জন ভর্তিচ্ছু পরীক্ষায় অংশ নেয়। তবে পরীক্ষার দুই নম্বর সেট কোডের প্রশ্নপত্রের ৪১ ও ৭৬ নম্বর প্রশ্ন নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়। ৭৬ নম্বর প্রশ্নটি ছিল- ‘পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ গ্রন্থের নাম কি?’ উত্তরের জন্য দেওয়া চারটি অপশন ছিল- (ক) পবিত্র কুরআন শরীফ (খ) পবিত্র বাইবেল (গ) পবিত্র ইঞ্জিল (ঘ) গীতা। গীতার আগে ‘পবিত্র’ ছিল না।

৪১ নম্বর প্রশ্নটি ছিল- ‘মুসলমান রোহিঙ্গাদের উপর মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা সশস্ত্র হামলা চালায় কত তারিখে?’

পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর পরই প্রশ্ন দুটিকে ‘সাম্প্রদায়িক উসকানি’ উল্লেখ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে সমালোচনার ঝড় ওঠে। 

বিষয়টি তদন্ত করতে গত ২৮ অক্টোবর উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহাকে প্রধান করে চার সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কমিটিকে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদনও দিতে বলা হয়েছে।

অন্যদিকে, সাম্প্রদায়িক বিভেদ সৃষ্টিকারী প্রশ্ন প্রণয়নে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। আগামী এক মাসের মধ্যে শিক্ষা সচিব, রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়, বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য, চারুকলা অনুষদের ডিনের জবাব চেয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলেন আদালত। 

‘বিতর্কিত’ প্রশ্ন দুটির বিষয়ে ডিন অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘প্রত্যেক ভর্তিচ্ছুকে ওই প্রশ্ন দুটির নম্বর দেওয়া হয়েছে। আর বিষয়টি এখনও তদন্তাধীন রয়েছে।’

অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, ‘চারুকলা অনুষদের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের মেধাক্রমানুযায়ী ২৫০ জনকে সাক্ষাৎকারের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৪ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৯টা থেকে।’

‘সাক্ষাৎকারের জন্য প্রার্থীকে অবশ্যই ১২ নভেম্বরের মধ্যে অনলাইনে সাবজেক্ট চয়েজ ফরম পূরণ করতে হবে। ‘সাক্ষাৎকারের সময় প্রার্থীদেরকে ডাউনলোড করা সাবজেক্ট চয়েস ফরম, এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার নম্বরপত্র, এইচএসসি বা সমমান রেজিস্ট্রেশন কার্ডের মূল কপি, ভর্তি পরীক্ষার হলে পরিদর্শক কর্তৃক সত্যায়িত প্রবেশপত্র সঙ্গে আনতে হবে।’

‘আই’ ইউনিটের ফলসহ বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে (http://admission.ru.ac.bd/undergraduate/) এই ঠিকানায়।

আপনার মন্তব্য

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
Page rendered in: 0.0215 seconds.